BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘কেউ তো মিথ্যা বলছেনই’, লাদাখে চিনা আগ্রাসন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ রাহুলের

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 3, 2020 3:08 pm|    Updated: July 3, 2020 3:08 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লাদাখে চিনা আগ্রাসন নিয়ে ফের প্রধানমন্ত্রীকে একহাত নিলেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। শুক্রবার নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে লাদাখের (Ladakh) বাসিন্দাদের করা ভিডিও পোস্ট করেছেন  রাহুল। যেখানে লাদাখের ভূখণ্ড চিন (China) দখল করে নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সেখানকার কিছু বাসিন্দা। সেই ভিডিও পোস্ট করে টুইটার হ্যান্ডেলে রাহুল লিখেছেন, “কেউ তো একজন মিথ্যা বলছেনই!” প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্র সরকার বারবার দাবি করেছেন ভারতীয় ভূখণ্ড কেউ দখল করেনি। সেই প্রসঙ্গ টেনেই এদিন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি কটাক্ষ করলেন।

ভারত-চিন লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা অব্যাহত। ৪৫ বছর পর চিনা হামলায় শহিদ হয়েছেন ২০ ভারতীয় জওয়ান। যা নিয়ে গোটা দেশে ক্ষোভের পারদ চড়ছে। উত্তাল রাজনীতিও। এমন পরিস্থিতিতেই সেনা জওয়ানদের মনোবল বাড়াতে শুক্রবারই  লেহ (Leh) গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রেখেছেন। এমন দিনেই মোদিকে (Narendra Modi) ফের নিশানা করছেন রাহুল।

[আরও পড়ুন : উত্তেজনার পরিবেশের মধ্যেই লাদাখ সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি]

এদিন সকালে নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে একটি ভিডিও পোস্ট করেন রাহুল (Rahul Gandhi)। সেই ভিডিওতে লাদাখের একাধিক বাসিন্দা অভিযোগ করেছেন, চিনা ফৌজ (PLA) লাদাখের একাধিক জমি দখল করছে। তাঁরা ভারতের সীমা ছাড়িয়ে ভিতরে ঢুকে এসেছে। জোর করে জমি দখল করছে লালফৌজ (PLA)। কিন্তু কেন্দ্র বরাবর দাবি করে এসেছে, ভারতের সীমা কেউ লঙ্ঘন করেনি। চিনা ফৌজ ভারতীয় সীমায় ঢোকেনি। তাঁদের এই দাবিকে ঘিরে ইতিমধ্যে প্রচুর জলঘোলা হয়েছে। এবার সেই বিষয়টি টুইটে তুলে ধরে রাহুল (Rahul Gandhi) লেখেন, “লাদাখবাসী বলছেন, চিন আমাদের জমি দখল করেছে। প্রধানমন্ত্রী বলছেন, কেউ আমাদের জমি দখল করেনি। কেউ তো একজন মিথ্যা বলছেন।” তবে এই প্রথমবার নয়। এর আগে একাধিকবার লাদাখ ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী-সহ কেন্দ্র সরকারকে তুলোধোনা করেছেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি।

[আরও পড়ুন : এবার প্রতিরক্ষায় ‘আত্মনির্ভর’ ভারত, দেশেই তৈরি হবে সুখোই যুদ্ধবিমান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement