BREAKING NEWS

৭ কার্তিক  ১৪২৮  সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘কোনও অবস্থাতেই রেলের বেসরকারিকরণ হবে না’, আশ্বস্ত করলেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল

Published by: Biswadip Dey |    Posted: March 16, 2021 3:43 pm|    Updated: March 16, 2021 3:43 pm

Railways will never be privatised, it will always remain with govt of India, says Piyush Goyal | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কোনও অবস্থাতেই রেলের (Indian Railways) বেসরকারিকরণ হবে না বলে আশ্বস্ত করলেন কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল (Piyush Goyal)। জানিয়ে দিলেন, রেলের মালিকানা বরাবরই থাকবে ভারত সরকারের হাতে। গত অক্টোবর থেকেই বেশ কিছু ট্রেনকে বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। তখন থেকেই প্রশ্ন উঠেছিল, তাহলে অদূর ভবিষ্যতে কি রেলের বেসরকারিকরণ হয়ে যাবে? এদিন সেই জল্পনাকে উড়িয়ে দিলেন রেলমন্ত্রী। তবে একই সঙ্গে রেলে বেসরকারি বিনিয়োগের পক্ষেও সওয়াল করতে দেখা গেল তাঁকে।

লোকসভায় (Lok Sabha) এদিন এপ্রসঙ্গে রেলমন্ত্রী জানান, ”আমাদের বিরুদ্ধে রেলের বেসরকারিকরণ করার অভিযোগ উঠছে। কিন্তু মানুষ কখনও বলেনি, রাস্তায় কেবল সরকারি পরিবহণই থাকুক। আসলে বেসরকারি ও সরকারি দুই ধরনের পরিবহণ থেকেই কিন্তু অর্থনৈতিক লাভ হয়। রেলে বেসরকারি বিনিয়োগকে সব সময়ই স্বাগত। কেননা এর ফলে পরিষেবার উন্নতি হবে।” সেই সঙ্গেই তিনি জানিয়ে দেন, বেসরকারি বিনিয়োগ হলেও রেলের বেসরকারিকরণ কখনওইহবে না। সরকারি ও বেসরকারি দুই ক্ষেত্রের সম্মিলিত প্রয়াসেই যে দেশ প্রকৃত উন্নয়নের দিকে এগবে তা জানিয়ে দেন তিনি।

[আরও পড়ুন : Zomato ডেলিভারি বয়কে চপ্পল ছুঁড়ে মারার অভিযোগে মহিলা ক্রেতার বিরুদ্ধে দায়ের FIR]

পাশাপাশি পীযূষ গোয়েল জানান, দেশের রেল পরিকাঠামো এক নতুন দৃষ্টিভঙ্গি সামনে রেখে এগিয়ে চলেছে। এবং দেশের সমস্ত ক্ষেত্রেই তার সুপ্রভাব পড়বে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে রেল দেশের ‘উন্নয়নের ইঞ্জিন’ হয়ে উঠেছে। তাঁর দাবি, ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে মোদি সরকার রেলের বরাদ্দ করেছিল ১.৫ লক্ষ কোটি টাকা। কিন্তু ২০২১-২২ সালে তা বাড়িয়ে ২.১৫ লক্ষ কোটি টাকা করা হয়েছে। বর্তমান প্রশাসনের প্রশংসার পাশাপাশি মনমোহন সরকারেরও নিন্দায় সরব হয়েছেন তিনি। তাঁর অভিযোগ, আগের সরকার নানা প্রতিশ্রুতি দিলেও তা ছিল ফাঁপা।

প্রসঙ্গত, গত বছরই জানা গিয়েছিল সারা দেশের ১২০টি শাখার ১৫১টি ট্রেন চলবে। ওই সব শাখায় অনলাইনে ট্রেন চালানোর দরপত্র চাওয়া হয় কেন্দ্রের তরফে। তখনই বিরোধীরা কেন্দ্রের সমালোচনায় সরব হয়েছিল। তাদের দাবি ছিল, রেলকে বেসরকারি হাতে তুলে দিচ্ছে সরকার। পরবর্তী সময়ে সেই দাবি আরও জোরাল হয়েছে। এদিন সেই অভিযোগকে উড়িয়ে দিয়ে কেন্দ্র জানিয়ে দিল, রেল থাকছে কেন্দ্রের হাতেই।

[আরও পড়ুন : বাটলা হাউস এনকাউন্টারে দোষী সাব্যস্ত আরিজ খানকে ফাঁসির সাজা দিল আদালত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement