BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

‘মোদিজি, রাজস্থানের এই ‘তামাশা’ বন্ধ করুন’, কটাক্ষ গেহলটের

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 1, 2020 10:01 pm|    Updated: August 1, 2020 10:01 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজস্থানের (Rajasthan) রাজনৈতিক টানাপোড়েন নিয়ে আগেই প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট (Ashok Gehlot)। এবার ফের তাঁকে উদ্দেশ্য করেই কটাক্ষ করে বললেন, “প্রধানমন্ত্রীর রাজস্থানের এই তামাশা শেষ করা দরকার”। একইসঙ্গে ফের একবার বিধায়ক কেনাবেচা নিয়েও বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন তিনি। 

শনিবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশ্যে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট বলেন, “গোটা দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিষ ভারতবাসী তাঁকে দু-দুবার সুযোগ দিয়েছে। তিনি মানুষকে হাততালি দিতে বলেছেন, থালা-বাসন বাজাতে বলেছেন-মানুষ তাঁকে বিশ্বাস করে করেছেন। এটা অনেক বড় বিষয়। কিন্তু এবার তাঁর রাজস্থানের এই তামাশা বন্ধ করা দরকার। অধিবেশন যত এগিয়ে আসছে বিধায়ক কেনাবেচার দর ততই বাড়ছে। কী তামাশা হচ্ছে এটা?” একইসঙ্গে তিনি জানান, শচীন পাইলটের নেতৃত্বের বিদ্রোহী বিধায়করা দলে ফিরতে চাইলে তাঁর আপত্তি নেই। কিন্তু কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্ব যদি তাঁদের ক্ষমা করে, তবেই ফিরতে পারবেন তাঁরা। 

আগামী ১৪ আগস্ট থেকে রাজস্থান (Rajasthan) বিধানসভার অধিবেশন শুরু করার নির্দেশ দিলেন রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র। বুধবার এই বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে তাঁর নির্দেশে। রাজ্যপালের দপ্তর থেকে প্রকাশিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, মন্ত্রিসভার তরফে পাঠানো প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে আগামী ১৪ আগস্ট থেকে রাজস্থান (Rajasthan) বিধানসভার পঞ্চম অধিবেশন শুরু করার অনুমতি দিয়েছেন রাজ্যপাল। তবে এই অধিবেশনে বিধায়কদের সবরকম স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে বলেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এরপরই দুই শিবিরেই তৎপরতা বেড়েছে।

[আরও পড়ুন : এবার উত্তরাখণ্ডের লিপুলেখে ঘাঁটি গাড়ল লালফৌজ, চিনের মতলব ভাল নয় বলছে সেনা]

শুক্রবারই জয়পুরের হোটেল ছেড়ে সোনার কেল্লার শহরে রওনা দিয়েছে গেহলট (Ashok Gehlot) শিবির।  সেদিনও গেহলট (Ashok Gehlot) দাবি করেছিলেন, “বিধায়ক কেনাবেচার অনেকটা সময় পেয়েছে বিজেপি। এই সময়ের মধ্যে  বিধায়ক কিনতে ‘মু মাঙ্গি কিমত’ দিতে তৈরি তাঁরা (বিজেপি)”। ফলে বিধায়কদের আরও সুরক্ষিত জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চলছে। 

[আরও পড়ুন : অবশেষে ফোনে আমন্ত্রণ, ভিডিও কনফারেন্সে রাম মন্দিরের ভূমিপুজো দেখবেন আডবানী-জোশী!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement