BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বাল্যবিবাহের বিরোধিতার জের, বৃদ্ধকে ১২ বছরের জন্য বয়কটের নির্দেশ রাজস্থানের খাপ পঞ্চায়েতের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 17, 2020 5:49 pm|    Updated: October 17, 2020 6:01 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাল্যবিবাহ ও শ্রাদ্ধের দিন লোক ডেকে খাওয়ানোর প্রথার বিরোধিতা করেছিলেন। এর জেরে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধকে ১২ বছরের জন্য সামাজিকভাবে বয়কট (social boycott) করার নির্দেশ দিল একটি খাপ পঞ্চায়েতের মাতব্বররা। অত্যন্ত অমানবিক ও নিন্দনীয় এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের চিতোরগড় জেলার নিমবাহেরা এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার চিতোরগড় (Chittorgarh) জেলার নিমবাহেরা এলাকার বাসিন্দা ৬৫ বছরের শিবলাল স্থানীয় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। যাতে তিনি উল্লেখ করেছেন যে নিমবাহেরা এলাকাকে নিয়ন্ত্রণকারী খাপ পঞ্চায়েত (Khap panchayat) তাঁকে ও তাঁর পরিবারকে ১২ বছরের জন্য সামাজিকভাবে বয়কটের নির্দেশ দিয়েছে। এর ফলে তাঁদের জীবনধারণ করা অসম্ভব হয়ে উঠছে। অবিলম্বে প্রশাসন যেন এর বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়।

[আরও পড়ুন: দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে জোর, ভুটানের ৫টি কৃষিপণ্যকে ভারতের বাজারে বিক্রির অনুমতি নয়াদিল্লির ]

এপ্রসঙ্গে শিবলার জানিয়েছেন, গত ৩০ জুলাই নিমবাহেরা এলাকা মহাদেব মন্দিরে খাপ পঞ্চায়েতের একটি মিটিং হয়েছিল। সেই মিটিংয়ে তাঁর ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের কাছে বাল্যবিবাহ ও শ্রদ্ধাভোজের বিষয়ে তাঁদের মতামত জানতে চাওয়া হয়। শিবলাল এই দুটি প্রথার বিষয়েই তাঁর আপত্তির কথা জানান। তারপরই গন্ডগোল শুরু হয়ে মিটিং বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তী মিটিংয়ে তারিখ ঠিক হয় ৩০ সেপ্টেম্বর। আর ওই দিন মিটিং শুরু হওয়ার পরেই বাল্যবিবাহ ও শ্রদ্ধাভোজের বিষয়ে বিরূপ মন্তব্য করার জন্য শিবলাল ও তাঁর পরিবারকে সামাজিকভাবে বয়কট করার নির্দেশ দেওয়া হয়। এলাকার কোনও ব্যক্তি যদি তাঁদের সঙ্গে কথা বলে বা সাহায্য করে তাহলে তাকে ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে বলেও ফরমান জারি করা হয়।

ওই বৃদ্ধের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই পঞ্চায়েতের ২১ জন সদস্যের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৮৪ ও ৫০০ ধারা অনুযায়ী মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। খুব তাড়াতাড়ি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার পাশাপাশি ওই বৃদ্ধকে সুবিচার পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘৩৭০ ধারা বাতিল অসাংবিধানিক’, মেহবুবা-ফারুকের জোটকে সমর্থন করে মন্তব্য চিদাম্বরমের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement