Advertisement
Advertisement
Ramdev

‘যোগের জন্য যা করেছেন ভালো, কিন্তু…’, রামদেবকে বলল সুপ্রিম কোর্ট

বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপনের মামলায় সম্প্রতি প্রবল অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে রামদেব ও তাঁর সংস্থাকে।

Ramdev was pulled up by the Supreme Court over Patanjali's misleading ads
Published by: Biswadip Dey
  • Posted:May 14, 2024 4:30 pm
  • Updated:May 14, 2024 4:30 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যোগগুরু রামদেবের বহু মানুষের উপরে যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে। তাঁর উচিত সেটাকে সঠিক পথে পরিচালিত করা। পতঞ্জলির (Patanjali) বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপনের মামলার শুনানিতে এমনই মন্তব্য সুপ্রিম কোর্টের।

মঙ্গলবার এই মামলার শুনানিতে আদালতে উপস্থিত হন পতঞ্জলি সংস্থার প্রধান আচার্য বালকৃষ্ণ ও বাবা রামদেব। সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা আদালতকে বলেন, রামদেব যোগের জন্য অনেক কিছুই করেছেন। এর পরই বিচারপতি হিমা কোহলি ও বিচারপতি এ আমানুল্লার বেঞ্চ বলে, ”বাবা রামদেবের (Baba Ramdev) মানুষের উপরে বিরাট প্রভাব রয়েছে। সঠিক পথে ব্যবহার করা উচিত। উনি যোগের জন্য যা করেছেন তা ভালোই। কিন্তু পতঞ্জলির বিষয়টা আলাদা।” পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্ট পতঞ্জলিকে বলে, ”আমাদের লক্ষ্য একটাই । মানুষ যেন সতর্ক থাকে। বাবা রামদেব সারা বিশ্বে যোগের প্রচারে অবদান রেখেছেন।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘মানবিকতা সংকটে, বন্ধ হোক এ রক্তের হোলি’, রাষ্ট্রসংঘে প্যালেস্টাইনের পাশে ভারত]

এদিকে এদিন শীর্ষ আদালত রামদেব-বালকৃষ্ণের আর্জিতে সাড়া দিয়ে জানিয়েছে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তাঁদের আদালতে সশরীরে উপস্থিত হওয়া থেকে অব্যাহতি দেওয়া হচ্ছে। প্রসঙ্গত, এই মামলার পরবর্তী শুনানি ৯ জুন।

Advertisement

উল্লেখ্য, বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপনের মামলায় সম্প্রতি প্রবল অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে রামদেব ও তাঁর সংস্থাকে। বার বার সুপ্রিম কোর্ট ভর্ৎসনা করেছে তাঁদের। নির্দেশ মতো সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দিয়ে ক্ষমাও চায় পতঞ্জলি। কিন্তু শীর্ষ আদালতের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়, রামদেবের ক্ষমাপ্রার্থনা নাকচ করা হল। কারণ ক্ষমা চাওয়ার ভঙ্গি মোটেও আন্তরিক ছিল না। পরের দিন আবারও সুপ্রিম কোর্টের কাছে ক্ষমা চান রামদেব।

[আরও পড়ুন: ফের দিল্লির হাসপাতালে বোমাতঙ্ক, যুদ্ধকালীন তৎপরতায় শুরু তল্লাশি অভিযান]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ