BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাষ্ট্রপতি ভবন চত্বরেই ধর্ষণের অভিযোগ, বড়সড় প্রশ্নের মুখে মহিলাদের নিরাপত্তা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 11, 2019 11:20 am|    Updated: April 11, 2019 11:20 am

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গণতন্ত্রের অন্যতম পীঠস্থান। দেশের সবচেয়ে নিরাপদ জায়গা রাষ্ট্রপতি ভবন। অথচ সেই রাষ্ট্রপতি ভবন চত্বরেই এবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠল। তাও আবার রাষ্ট্রপতি ভবনেরই এক কর্মীর বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় আরও একবার দেশে নারী নিরাপত্তা প্রশ্নের মুখে।

[আরও পড়ুন: এখনও নাগ-নাগিনীর সঙ্গে সহবাস করে চাঁদ সওদাগরের চম্পানগর]

দিল্লির এক কলেজ ছাত্রীর অভিযোগ, মঙ্গলবার রাতে রাষ্ট্রপতি ভবনেরই এক কর্মী তাঁকে ফুঁসলিয়ে রাষ্ট্রপতি ভবনের কর্মীদের আবাসনে নিয়ে যায়। সেখানে তাঁকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁর সঙ্গে সহবাস করে ওই অভিযুক্ত। পরে, তাঁকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেছে অভিযুক্ত ব্যক্তি। ইতিমধ্যেই পুলিশে অভিযোগও দায়ের করেছে ওই স্নাতকোত্তরের ছাত্রী। তাঁর করা অভিযোগের ভিত্তিতে জানা হিয়েছে অভিযুক্ত কর্মীর নাম নিশান্ত যাদব। বেশ কিছুদিন ধরেই ওই মহিলার নিশান্ত যাদবের কোয়ার্টারে যাতায়াত ছিল বলে জানা গিয়েছে। এর আগেও একাধিকবার বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছিল সে। মঙ্গলবার রাতেও তেমনি ঘটনা ঘটে। কিন্তু বুধবারই অভিযুক্ত ওই ছাত্রীকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। তারপরই মামলা দায়ের করেন নির্যাতিতা। প্রশ্ন উঠছে, রাষ্ট্রপতি ভবন চত্বরে বিনা অনুমতিতে এক মহিলা কিভাবে নিয়মিত যাতায়াত করতেন। আর এই ধরনের ঘটনায় বা কী করে ঘটল।

দিল্লির ডিসিপি মধুর ভার্মা জানিয়েছেন, নর্থ অ্যাভিনিউ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। যদিও মধুর ভার্মা বলছেন, রাষ্ট্রপতি ভবনে ধর্ষণের অভিযোগ সত্যি নয়। ওই অভিযুক্ত কালীবাড়ি এলাকায় থাকে। সেখানেই যাতায়াত ছিল ওই মহিলার। এখনও পর্যন্ত অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: মিউজিক অ্যালবাম বানানোর জন্য নাবালককে অপহরণ, পুলিশের জালে উঠতি গায়ক]

রাজধানীর বুকে ধর্ষণের অভিযোগ অবশ্য নতুন কিছু নয়। ভারতে নারীদের মধ্যে বিপজ্জনক জায়গার তালিকায় উপরের সারিতেই রয়েছে দিল্লি। রাষ্ট্রপতি ভবনে ধর্ষণের ঘটনা যদি সত্যি হয়, তাহলে তা দিল্লি পুলিশের বড়সড় ব্যর্থতা হিসেবেই পরিগণিত হবে। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement