BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সাধারণতন্ত্রের ৬ দশক পার, কতটা বদলাল দেশ?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 26, 2018 5:31 am|    Updated: January 26, 2018 5:31 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  ১৯৪৭ সালের ১৫ অাগস্ট। স্বাধীনতা পেল দেশ। তবে প্রজাতন্ত্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে সময় লেগেছিল আরও ২ টি বছর। ১৯৪৯ সালে ২৬ জানুয়ারি সদ্য স্বাধীন  ভারতে কার্যকর হল নয়া সংবিধান। দেখতে দেখতে পেরিয়ে পেল ছয় দশক। শুক্রবার দেশজুড়ে মহা সমারোহে পালিত হচ্ছে ৬৯ তম সাধারণতন্ত্র দিবস। কিন্তু, এই দীর্ঘ পথ পেরিয়ে কতটা বদলাল দেশ? কী পেলাম আমরা? অপ্রাপ্তিই বা রয়ে গেল কতটুকু?  প্রতিবেদনে তুলে ধরা তেমনই কিছু তথ্য।

[পদ্ম সম্মানে উজ্জ্বল ৫ বঙ্গসন্তান, সম্মানিত]

প্রথমে সিনেমার জগতের কথা। স্বাধীন ভারতে প্রথম ব্লক বাস্টার ছবি ছিল ‘সমাধি’। দেশ জুড়ে ৭৫ লাখ টাকা ব্যবসা করেছিল ছবিটি। আর এ সময়ের সবচেয়ে বড় হিট সলমন খান অভিনীত ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’। ছবির ব্যবসায়িক লাভের পরিমাণ চোখের কপালের তুলে দেওয়ার মতো। ছবিটি আয় করেছে ৩২৯ কোটির টাকারও বেশি।

[জনপ্রিয়তা কমছে মোদির, সেরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা]

ভারতের সংবিধানের স্বাস্থ্যকে নাগরিকদের মৌলিক অধিকারের স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। জানেন কি, সংবিধান কার্যকর হওয়ার সময়ে দেশে কতজন  নথিভুক্ত চিকিৎসক ছিলেন? মাত্র ৬১ হাজার ৮০০ জন। আর এখন দেশে নথিভুক্ত চিকিৎসকের সংখ্যা প্রায় দশ লক্ষের কাছাকাছি। সঠিকভাবে বলতে গেলে, ৯ লক্ষ ৮৮ হাজার ৯২২ জন।

[চিনা গবেষণাগারে জন্ম নিল বাঁদরের ‘ক্লোন’, জল্পনা মানুষ নিয়েও]

আধুনিক যুগের চিকিৎসাবিজ্ঞানের অভূতপূর্ব উন্নতির কারণে মানুষ অনেক বেশিদিন বাঁচেন। সাধারণ হিসেবে বলা হয়, একজন মানুষের গড় আয়ু ৬০ বছর। তবে এখন গড়ে একজন মানুষ প্রায় ৬৮ বছর পর্যন্ত জীবিত থাকেন। কিন্তু, আজ ৬৯ বছর আগে ছবি মোটেই তেমন ছিল না। শুনতে অবাক লাগলেও, এটা ঘটনা, যে তখন মানুষের গড় আয়ু ছিল মাত্র ৩১ বছর।

[থানায় যেতে আগ্রহ নেই ভারতীয়দের, আদালতের বাইরে মীমাংসায় বেশি উৎসাহ]

পরাধীন ভারতে নিজেদের স্বার্থে রেল পরিষেবা চালু করেছিল ব্রিটিশরাই। কালে কালে সেই রেলপথই হয়ে উঠল দেশের লাইফলাইন। পরিংসখ্যান বলছে, ১৯৫০ সালে সারা দেশের মাত্র ৫৩ হাজার কিমি রেলপথ ছিল। এখন যা বেড়ে হয়েছে ৬৬ হাজার ৬৮৭ কিমি।

[স্ত্রীর বিরুদ্ধে পারিবারিক নির্যাতনের মামলা ঠুকলেন বিধ্বস্ত স্বামী!]

সবাই খাদ্য রসিক হন না। কিন্তু, জীবন ধারণের প্রধান ও প্রাথমিক উপাদান খাদ্য। সদ্য স্বাধীন দেশে নাগরিক পিছু  দৈনিক ৬০ গ্রাম খাদ্যশস্য বরাদ্দ ছিল। আর এখন জনসংখ্যায় চাপে টান পড়েছে খাদ্যশস্যে। স্বাধীনতার ৭০ বছর পরে নাগরিকদের জন্য দৈনিক বরাদ্দ মাত্র ৪৭ গ্রাম।

[ট্রেনের সামনে সেলফি তুলতে গিয়ে কী হল এই যুবকের, ভিডিও দেখলে শিউরে উঠবেন

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement