BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

সোনা-রুপোয় ঠাসা সরকারি কর্মীর ঘর, তাজ্জব গোয়েন্দারা!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 25, 2016 1:43 pm|    Updated: March 30, 2022 4:07 pm

room full off silver and more found in raid from the house of an Andhra Officer

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৬০ কেজি রুপোয় ঠাসা একটি ঘর, এক কেজি সোনা আর ২০ লক্ষ নগদ টাকা৷ অন্ধ্রপ্রদেশের গুন্টারের এক সড়ক পরিবহণ দফতরের কর্মীর বাড়িতে হানা দিয়ে ‘মাত্র’ এই কয়েকটি জিনিস পাওয়া গিয়েছে৷ ১৪ টি বাড়িও রয়েছে তাঁর৷ তবে এ আর এমন কী! দুর্নীতি দমন শাখার অনুমান, এর চেয়ে অনেক বেশি কিছু গচ্ছিত আছে এই কর্মীর গোপন ‘সিন্দুক’-এ৷

১৯৮১ সালে মোটর ভেহিকল ইন্সপেক্টর হিসেবে কাজে যোগ দিয়েছিলেন পূর্ণচন্দ্র রাও৷ তারপর চলে আসেন সড়ক পরিবহণ দফতরে৷ দীর্ঘ ৩৪ বছরের চাকরিতে দিনের পর দিন কালো টাকা আত্মসাৎ করেছেন৷ আর সেই টাকা লুকিয়ে রাখতে কখনও বাড়ি কিনেছেন তো কখনও ঘর ভর্তি করেছেন সোনা-রুপো দিয়ে৷ তখন ভাবতেও পারেননি, এমনভাবে তাঁর কুকীর্তি একদিন ফাঁস হয়ে যাবে৷ দুর্নীতি দমন শাখার তরফে খবর, ৫৫ বছরের পূর্ণচন্দ্র রাওয়ের বিনুকোন্দায় সাতটি অ্যাপার্টমেন্ট ও দু’টি বাড়ি এবং একটি শস্য তৈরির কারখানা রয়েছে৷ এছাড়াও গুন্টারে একটি বাড়ি, হায়দরাবাদ ও বিজয়ওয়াড়াতে দু’টি করে ফ্ল্যাট আছে এই ব্যক্তির৷ তিনি প্রায় তিন কোটি টাকার সম্পত্তির মালিক বলে দাবি গোয়েন্দাদের৷ পাশাপাশি বাড়ি তল্লাশি করে যা পাওয়া গিয়েছে, তার মূল্য ২৫ কোটির চেয়ে কম হবে না বলেই অনুমান তাঁদের৷ তল্লাশি চালালে আরও সম্পত্তি উদ্ধার করা সম্ভব হবে বলে নিশ্চিত তাঁরা৷

পূর্ণচন্দ্র রাওয়ের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল৷ সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই সোমবার তাঁর বাড়িতে হানা দেন দুর্নীতি দমন শাখার গোয়েন্দারা৷ তখনই হদিশ মেলে তাঁর গোপন সম্পত্তির৷ তাঁর বিরুদ্ধে হিসাব বহির্ভূত আয়ের সম্পত্তি রাখার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে