BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এক হাজারে হুমকি, ৫৫ হাজারে খুন! যোগীর রাজ্যে অপরাধের ‘রেট চার্ট’ ফাঁস ইন্টারনেটে

Published by: Biswadip Dey |    Posted: November 5, 2020 1:59 pm|    Updated: November 5, 2020 1:59 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস বুরোর গত কয়েক বছরের রিপোর্ট অনুযায়ী হিংসাত্মক অপরাধে গোটা দেশের মধ্যে শীর্ষে উত্তরপ্রদেশ (Uttrar Pradesh)। যোগীর রাজ্যে নারী নির্যাতন থেকে নানা ধরনের অপরাধের ঘটনায় বারবার শিউরে উঠেছে দেশ। এবার মুজফফরগনগরের এক দুষ্কৃতী দলের তরফে সোশ্যাল মিডিয়ায় খোলাখুলি অপরাধের ‘রেট চার্ট’ প্রকাশ করার ঘটনায় স্পষ্ট হয়ে উঠল অপরাধমূলক মানসিকতার শিকড় কতদূরে পৌঁছে গিয়েছে সেখানে।

ঠিক কী রয়েছে বিতর্কিত পোস্টে? দুষ্কৃতী দলের প্রতিনিধি এক তরুণ নিজের ছবি-সহ বেশ কয়েকটি ছবি দেয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। তার মধ্যে একটি ছবিতে তার হাতে বন্দুকও দেখা যাচ্ছে। সেই সঙ্গে রয়েছে এক চার্ট। যা থেকে তাদের বিভিন্ন ‘পরিষেবা’র জন্য কীরকম দর তা জানা যাচ্ছে।

[আরও পড়ুন: হার মানল সিনেমা! অপহৃত হওয়ার গল্প ফেঁদে ৫০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ চাইল নাইনের পড়ুয়া]

ওই চার্ট অনুযায়ী, কাউকে হুমকি দিতে লাগবে ১ হাজার টাকা। কাউকে পেটাতে হলে দিতে ৫ হাজার। মারাত্মক জখম করতে চার্জ ১০ হাজার। আর ৫৫ হাজার টাকা দিলেই তার বিনিময়ে কারও প্রাণ নিতেও (Murder) প্রস্তুত ওই দলটি। স্বাভাবিকভাবেই এমন পোস্ট দেখে থ হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তা দ্রুত ছড়িয়েও পড়েছে। অবশেষে আসরে নেমেছে পুলিশ। তদন্ত শুরু করার পর জানা গিয়েছে, বন্দুক হাতে ছবির ওই তরুণ এক পিআরডি জওয়ানের ছেলে। তার বাড়ি চৌকারা গ্রামে। এখনও অবশ্য তাকে বা তার দলের কাউকেই গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। তাদের দাবি, তদন্ত চলছে। খুব দ্রুত এব্যাপারে পদক্ষেপ করতে চলেছে তারা।

[আরও পড়ুন: কর্তব্যরত মহিলা পুলিশকর্মীকে হেনস্তার অভিযোগ, ফের FIR অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে]

সাম্প্রতিক অতীতে বারবার যোগীর রাজ্যে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠেছে। এর মধ্যে অন্যতম নারী নির্যাতন। হাথরাসে এক তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনায় অপরাধীদের দ্রুত ন্যায়বিচার চেয়ে গর্জে উঠেছিল গোটা দেশ। তারপরও নানা অপরাধের ঘটনার নজির সামনে এসেছে। সোশ্যাল মিডিয়ার এই ‘রেট চার্ট’ রাজ্যে অপরাধের বাড়বাড়ন্তের বিষয়টিকে নতুন মাত্রা দিল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement