১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২৬ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সিধুর পদত্যাগ ও স্ত্রীর বিরুদ্ধে খুনের মামলার দাবিতে সরব অকালি দল

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: October 22, 2018 1:06 pm|    Updated: October 22, 2018 1:49 pm

SAD demands resignation of Sidhu, murder case against wife

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অমৃতসর রেল দুর্ঘটনায় দায় নিয়ে রাজ্য ও কেন্দ্রের মধ্যে সংঘাতের আবহে চূড়ান্ত অস্বস্তিতে পড়েন পাঞ্জাব সরকারের মন্ত্রী নভজ্যোৎ সিং সিধু৷ দুর্ঘটনার দায় নিয়ে টানাপোড়নের মাঝে এবার নভজ্যোৎ সিং সিধুর পদত্যাগের দাবি তুলে আন্দোলনে নামতে চলেছে শিরোমণি অকালি দল (অমৃতসর)। শুধু পদত্যাগই নয়, সিধুর স্ত্রীর নভজ্যোৎ কৌর-সহ দশেরা আয়োজকদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করতে চলেছে স্বাধীন খালিস্তানের দাবি জানানো শিরোমণি অকালি দল৷ দুর্ঘটনার দায় নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের ইস্তফারও দাবি তোলা হয়েছে৷

[গণধর্ষণের শিকার, নগ্ন অবস্থায় তিনতলা থেকে ঝাঁপ দিলেন নেপালি যুবতী]

শিরোমণি অকালি দলের দাবি, রেল দুর্ঘটনার দায় এড়িয়ে কংগ্রেস যুব নেতা সৌরভ মিঠু মদান ও তাঁর বাবা কংগ্রেস কাউন্সিলর বিজয় মদান এলাকা ছেড়ে চম্পট দেন৷ ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও এখনও আয়োজকদের টিকি খুঁজে পায়নি পুলিশ৷ ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত দুই ব্যক্তির ঘটনাস্থল ছেড়ে চম্পট দেওয়ার সিসিটিভি ফুটেজও প্রকাশ্যে এসেছে৷ এতবড় দুর্ঘটনা প্রত্যক্ষ করার পর কেন গাড়ি নিয়ে পালালেন কংগ্রেসের দুই প্রভাবশালী নেতা? প্রশ্ন শিরোমণি অকালি দলের৷ অবিলম্বে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারি ও খুনের মামলা দায়ের করে ঘটনার তদন্তের দাবিও উঠতে শুরু করেছে৷ শিরোমণি অকালি দলের প্রধান সুখবির সিং বাদল সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘‘এই ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্তের প্রয়োজন৷ কেন, রেলের অনুমতি না নিয়ে এই অনুষ্ঠান করা হয়েছিল, তা তদন্ত হওয়া প্রয়োজন৷ অবিলম্বে আয়োজকদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করে আদালতের পর্যবেক্ষণে ঘটনার তদন্তে নামুক পুলিশ৷’’

[সুপ্রিম রায়ের বিরোধিতা, আজ থেকে বন্ধ সবরীমালার দরজা]

দুর্ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা পরও দায় কার, সে নিয়ে তরজা চলছেই। অমৃতসরের ঘটনায় নিরাপত্তায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে এবং দুর্ঘটনায় নিখোঁজদের দ্রুত অনুসন্ধানের দাবিতে প্রশাসনের বিরুদ্ধে জোড়াফটকে সরব হয়েছিল স্থানীয় জনতা। অকুস্থলে রেললাইন অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। অন্যদিকে, যে অনুষ্ঠান ঘিরে দুর্ঘটনার সূত্রপাত, সেই অনুষ্ঠানের আয়োজকদের দেখা নেই এখনও। গোটা ঘটনায় তাদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই গা-ঢাকা দিয়েছেন অনুষ্ঠানের মূল উদ্যোক্তা এলাকার স্থানীয় কংগ্রেস নেতা তথা কাউন্সিলর বিজয় মদন এবং তাঁর পুত্র সৌরভ মিঠু মদান। তাঁদের বাড়িতে হামলা চালিয়েছিল জনতা। ঘটনার প্রেক্ষিতে ইস্তফার দাবি উঠেছে মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং-সহ পাঞ্জাব সরকারের মন্ত্রী নভজ্যোৎ সিং সিধুর।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে