১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

তাজমহল নিয়ে কেরল পর্যটন দপ্তরের টুইটে মজেছে নেটিজেনরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 20, 2017 3:52 pm|    Updated: October 20, 2017 3:52 pm

‘salutes Taj Mahal for inspiring millions’, tweet Kerala Tourism

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জাতীয় রাজনীতিতে এখন আলোচনার কেন্দ্রে তাজমহল। মোঘল আমলের এই সৌধটিকে নিয়ে একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্য করে হিন্দুত্বের জিগির তুলতে ব্যস্ত বিজেপি নেতা-মন্ত্রীরা। এই পরিস্থিতিতে তাজমহল নিয়ে বামশাসিত কেরলের পর্যটন দপ্তরের একটি টুইট নজর কেড়েছে নেটিজেনদের। অনেকেই বলছেন, যোগী সরকারের পর্যটন দপ্তরকে শিক্ষা দিতে চাইছে কেরলের পর্যটন দপ্তর।

[সুপ্রিম নিষেধাজ্ঞার ফল, দিল্লিতে কমল দূষণের মাত্রা]

পৃথিবীর সপ্তম আশ্চর্যের অন্যতম আগ্রার তাজমহল। স্ত্রী মুমতাজ মহলের মৃত্যুর পর, আগ্রায় যমুনার তীরে এই স্মৃতিসৌধটি তৈরি করেছিলেন মোঘল সম্রাট শাহজাহান। কালে কালে এই স্মৃতিসৌধটি প্রেমের চিরন্তন প্রতীক হিসেবে পরিচিত পেয়েছে গোটা বিশ্বে। তাজমহলকে বিশ্বের সপ্তম আশ্চর্যের স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনেস্কো। শুধুমাত্র তাজমহলে দেখতেই বছরভর আগ্রায় ভিড় করেন দেশি-বিদেশি পর্যটকরা। এমনকী, ভারত সফরে এসে তাজমহল দেখতে যান ভিনদেশি রাষ্ট্রপ্রধান-সহ হাইপ্রোফাইল ব্যক্তিত্বরা। কিন্তু, সেই তাজমহলকেই রাজ্যের দ্রষ্টব্য তালিকা থেকে বাদ দিয়ে বিতর্ক তৈরি করেছে উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকার। আর সে্ই বিতর্কে নয়া মাত্রা যোগ করেছেন বিজেপি বিধায়ক সঙ্গীত সোম। সম্প্রতি মীরাটে এক জনসভায় তাজমহলকে ভারতীয় সংস্কৃতির কলঙ্ক বলেই অভিহিত করেন তিনি। বিজেপি বিধায়ক বলেন, বিশ্বাসঘাতকদের হাতে তৈরি দেশের এই ঐতিহাসিক স্মৃতিসৌধ। বিধায়কের মন্তব্যে আলোড়ন পড়ে যায় গোটা দেশে্। এই ইস্যুতে যোগী সরকারকে ব্যঙ্গ করতে গিয়ে তাজমহল ভেঙে ফেলার প্রস্তাব দেন সমাজবাদী নেতা আজম খান। সবমিলিয়ে জমে ওঠেছে বিতর্ক। চাপে পড়ে নিজের অবস্থান বদলে ফেলতে কার্যত বাধ্য হয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

[সমূহ বিপদের মুখে দেশ, দূষণের জেরে মৃত্যুর সংখ্যায় চিনকেও ছাপিয়ে গেল ভারত]

এই পরিস্থিতিতে তাজমহল নিয়ে একটি টুইট করেছে বামশাসিত কেরলের পর্যটন দপ্তর। টুইটে লক্ষ লক্ষ মানুষকে ভারতকে আবিষ্কার করতে অনুপ্রাণিত করার জন্য তাজমহলকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।

 

এই টুইট নিয়েই এখন জোর আলোচনা চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনদের মতে, একটি টুইটেই কেরলের পর্যটন দপ্তর, যোগী সরকারের পর্যটন দপ্তরকে বুঝিয়ে দিয়েছে, কীভাবে পর্যটনের প্রসার ঘটাতে হয়।

[দিওয়ালিতে গরবা নাচলেন মোদির মা, ভাইরাল ভিডিও!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে