৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মেয়াদ শেষ তথাগত রায়ের, মেঘালয়ের নতুন রাজ্যপাল হলেন সত্যপাল মালিক

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 18, 2020 1:43 pm|    Updated: August 18, 2020 1:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যপাল হিসাবে তথাগত মেয়াদ শেষ তথাগত রায়ের (Tathagata Roy)। তাঁর জায়গায় মেঘালয়ের নতুন রাজ্যপাল হলেন সত্যপাল মালিক। মালিক এর আগে গোয়ার দায়িত্বে ছিলেন। আপাতত মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারিকে গোয়ার অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সত্যপাল মালিকের আমলেই কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে কেন্দ্র। সেসময় তাঁর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্নও উঠেছিল। যার জেরে তাঁকে হঠাৎ গোয়ায় বদলি করা হয়। তথাগতর মেয়াদ শেষ হওয়ার পর সেই সত্যপালই গেলেন মেঘালয়ে। টুইট করে ইতিমধ্যেই সত্যপালকে (Satya Pal Malik) স্বাগত জানিয়েছেন তথাগত।

মেঘালয়ের (Meghalaya) রাজ্যপাল হিসাবে তথাগত রায়ের কার্যকালের মেয়াদ মে মাসেই শেষ হয়ে যায়। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির জন্য তাঁকে এতদিন কাজ চালিয়ে যেতে বলা হয়েছিল। ৭৪ বছর বয়সী তথাগত একসময় রাজ্য বিজেপির সভাপতি ছিলেন। তারপর দুই রাজ্যের রাজ্যপাল হয়েছেন। ২০১৫ সালের মে মাসে তিনি ত্রিপুরার দায়িত্ব নেন। সেখান থেকে ২০১৮ সালের আগস্টে তাঁকে পাঠানো হয় মেঘালয়। কিছুদিন অরুণাচল প্রদেশের অতিরিক্ত দায়িত্বও তাঁকে দেওয়া হয়েছিল। দুই রাজ্য মিলিয়ে তাঁর রাজ্যপাল পদে থাকার মেয়াদ শেষ। সাংবিধানিক পদে থাকা সত্ত্বেও তাঁর আলটপকা মন্তব্যের বহর থামেনি। বারবার তাঁর বিরুদ্ধে ধর্মবিদ্বেষী তথা পক্ষপাতদুষ্ট মন্তব্য করার অভিযোগ উঠেছে। যার জের প্রায় নিয়মিত শিরোনামে থাকতেন তথাগত।

[আরও পড়ুন:  ১৮ আগস্ট নেতাজির ‘মৃত্যুদিন’, একযোগে টুইট কংগ্রেস ও বিজেপি নেতাদের, শুরু বিতর্ক]

দিন কয়েক আগেই তথাগত ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন, রাজভবন থেকে বেরিয়ে ফের রাজনীতিতে আসতে চান। ২০২১ নির্বাচনের আগে ফের রাজ্য রাজনীতিতে ফের সক্রিয় ভূমিকা নিতে চান। এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, মেঘালয়ের বিদায়ী রাজ্যপাল ২০০২-০৬ পর্যন্ত বঙ্গ বিজেপির (BJP) সভাপতি ছিলেন। তারপর প্রায় ৯ বছর বিজেপির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। মঙ্গলবার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পাওয়ার পরই আবার তিনি বিশ্বভারতীতে ভাঙচুর নিয়ে সরব হয়েছেন। এই ঘটনার নেপথ্যে তৃণমূলের হাত রয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন। অর্থাৎ একেবারে সরাসরি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নেওয়া শুরু করে দিয়েছেন বঙ্গ বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement