১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মালিয়ার বিরুদ্ধে ব্রিটেন হাই কোর্টের রায়ে স্বস্তিতে এসবিআই

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 6, 2018 3:55 pm|    Updated: July 6, 2018 3:55 pm

SBI ‘happy’ with UK order against Vijay Mallya

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্রিটেন হাই কোর্টের রায়ে স্বস্তিতে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া। ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অরিজিৎ বসু জানিয়েছেন, আদালতের এই রায়ের পর দেশের সবচেয়ে বড় ঋণদাতারা খুব খুশি।

ভারত থেকে পালিয়ে বিজয় মালিয়া আপাতত ব্রিটেনে রয়েছে। সেখানেই ব্রিটেন হাই কোর্টে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছিল। সেই মামলার রায় দিয়েছে আদালত। আর সেই রায় ১৩টি ঋণদাতা ব্যাংকের স্বপক্ষে গিয়েছে। আদালত জানিয়েছে, মালিয়ার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে পারবেন এনফোর্সমেন্ট অফিসাররা। প্রয়োজন পড়লে তাঁরা মালিয়ার মালিকানাধীন জায়গায় প্রবেশ করতে পারবেন বলেও অনুমতি দিয়েছে আদালত।

বিজয় মালিয়ার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি ]

এতে সবচেয়ে বেশি স্বস্তিতে এসবিআই। কারণ এই ব্যাংক থেকেই বেশি টাকা ঋণ নিয়েছিল মালিয়া। ব্যাংকের এমডি অরিজিৎ বসু বলেছেন, “ব্রিটেন এনফোর্সমেন্ট মালিয়ার বিরুদ্ধে যে রায় দিয়েছে, তাতে আশাকরি আমরা আমাদের টাকা উদ্ধার করতে পারব। মালিয়ার ভারতীয় সম্পত্তি নিলাম করে আমরা ৯৬৩ কোটি টাকা পেয়েছি।”

আর্থিক তছরূপের জন্য আরসিবিকে ব্যবহার করেছিল মালিয়া, চার্জশিটে জানাল ইডি ]

আগেই ব্রিটিশ আদালতের রায়ে ধাক্কা খেয়েছিল লিকার ব্যারন বিজয় মালিয়া। আদালত জানিয়েছিল, মামলা চালানোর খরচ বাবদ ১৩টি ভারতীয় ব্যাংক ১.৮ কোটি টাকা জরিমানা দিতে হবে মালিয়াকে। মালিয়ার বিরুদ্ধে প্রতারণা ও ঋণখেলাপির মামলা করেছিল মোট ১৩টি ব্যাংক। যার মধ্যে রয়েছে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া, ইউনাইটেড ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার মতো সর্বভারতীয় সংস্থাগুলিও। ইউকে হাই কোর্ট জানিয়ে দিয়েছে মামলা চালাতে ব্যাংকগুলির যে ২ লক্ষ পাউন্ড খরচ হয়েছে তা বহন করতে হবে মালিয়াকে। এর আগে প্রতারণার দায়ে মালিয়ার সমস্ত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করার নির্দেশ দিয়েছিল ভারতের একটি আদালত। সেই নির্দেশ বলবৎ করতে যে খরচ হয়েছে তাও দিতে হবে মালিয়াকেই। এমনকী তার সমস্ত অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করা এবং সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার যে নির্দেশ ভারতীয় আদালত দিয়েছিল তা প্রত্যাহার করতে অস্বীকার করে ব্রিটিশ আদালত। তবে ১০ হাজার কোটির ঋণখেলাপির মামলায় তখনও চূড়ান্ত কোনও রায় দেয়নি আদালত। এবার সেই রায় দিল ইউকে হাই কোর্ট।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে