BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ৪ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কৈলাস-মুকুল-অর্জুনের বিরুদ্ধে এখনই করা যাবে না কঠোর পদক্ষেপ, রাজ্যকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 18, 2020 3:44 pm|    Updated: December 18, 2020 3:47 pm

SC issues notice to WB govt & orders no coercive action should be taken by govt against BJP leaders ।Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনের (Assembly Election 2021) আগে এবার সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা তৃণমূলের। বিজেপি নেতাদের দায়ের করা মামলার পরিপ্রেক্ষিতে সর্বোচ্চ আদালত জানান, এখনই কৈলাস বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়, অর্জুন সিং-সহ পাঁচ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে পরবর্তী শুনানি না হওয়া পর্যন্ত নেওয়া যাবে না কোনও কঠোর ব্যবস্থা। সুপ্রিম কোর্টের রায়ে স্বস্তিতে বঙ্গ বিজেপি নেতারা।

বাংলার পুলিশের নিরপেক্ষতা নিয়ে বারবার প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপি (BJP) নেতারা। তাঁদের অভিযোগ, আইনি পন্থায় তাঁদের কার্যত হেনস্তা করাই লক্ষ্য পুলিশের। তাই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বিজেপি নেতাদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে। এই অভিযোগেই সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হন কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতা অরবিন্দ মেনন (Arvind Menon)। তিনি জানান, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়, অর্জুন সিং-সহ পাঁচ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে বাংলার বিভিন্ন থানায় মোট ১১৪টি মামলা রয়েছে।

কৈলাস বিজয়বর্গীয়র (Kailash Vijayavargiya) বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলা রয়েছে। মুকুল রায়কে (Mukul Roy) ২০১৯ সালে সরস্বতী পুজোর রাতে খুন হওয়া নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসের মামলার চার্জশিটে মূল অভিযুক্ত হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। অর্জুন সিংয়ের (Arjun Singh) বিরুদ্ধে ভাটপাড়ার সমবায় ব্যাংকে আর্থিক তছরূপের মামলা রয়েছে। ওই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি তাঁর বাড়িতে সার্চ ওয়ারেন্ট নিয়ে তল্লাশিতে যান পুলিশকর্মীরা। বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে প্রথমে পুলিশকর্মীদের বাধা দেওয়া হয়। তবে পরে যদিও গভীর রাত পর্যন্ত বিজেপি সাংসদের উপস্থিতিতে তল্লাশি চালান পুলিশকর্মীরা। এসবই সাংসদকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা বলেই দাবি গেরুয়া শিবিরের।

[আরও পড়ুন: ‘কৃষকদের ভুল বোঝাচ্ছে বিরোধীরা, ফসলের MSP দেওয়া হবে’, সাফ কথা মোদির]

তার পরিপ্রেক্ষিতেই সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) দ্বারস্থ হন অরবিন্দ মেনন। সেই মামলারই শুনানি ছিল শুক্রবার। ওই মামলার শুনানির পর সুপ্রিম কোর্ট রাজ্যকে নির্দেশ দেয়, এখনই কৈলাস বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়, অর্জুন সিং-সহ পাঁচ নেতার বিরুদ্ধে নেওয়া যাবে না কোনও কঠোর পদক্ষেপ। তবে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা যেতে পারে বলেই জানিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

[আরও পড়ুন: খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অফিস বিক্রির বিজ্ঞাপন OLX-এ! চাঞ্চল্য বারাণসীতে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে