৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মহারাষ্ট্রে সাধু হত্যার ঘটনায় জনস্বার্থ মামলা, পুলিশের কাছে রিপোর্ট তলব সুপ্রিম কোর্টের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 1, 2020 4:36 pm|    Updated: May 1, 2020 4:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পালঘরে সাধুদের হত্যার ঘটনার তদন্তে কতটা অগ্রগতি হয়েছে। মহারাষ্ট্র পুলিশের কাছে তা জানতে চেয়ে রিপোর্ট তলব করল সুপ্রিম কোর্ট। গত ১৬ এপ্রিল কিডনি চোর অপবাদ দিয়ে দুই সাধুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। ছাড় পাননি তাঁদের গাড়ির চালকও। ঘটনাটির তদন্তে নেমে আগেই ১১০ জন মানুষকে গ্রেপ্তার করেছিল মহারাষ্ট্র পুলিশ। বৃহস্পতিবার ফের আরও পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিষয়টি নিয়ে টানাপোড়েনের মাঝেই নির্মম এই হত্যাকাণ্ডের তদন্তে উদ্ধব ঠাকরের পুলিশ অবহেলা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনকী এই ঘটনার সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন এক আইনজীবী শশাঙ্ক শেখর ঝা। তাঁর অভিযোগ, মহারাষ্ট্র পুলিশও এই ঘটনায় জড়িত ছিল। তাই এই হত্যাকাণ্ডের তদন্তের ভার তাদের হাত থেকে নিয়ে সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়া হোক। না হলে আদালতের তত্ত্বাবধানে তদন্ত প্রক্রিয়া চালানো হোক।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে মধ্যবিত্তদের জন্য স্বস্তি, অনেকটাই কমল ভরতুকিহীন সিলিন্ডারের দাম ]

শুক্রবার এই আবেদনের শুনানি হয় সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণ ও সঞ্জীব খান্নার ডিভিশন বেঞ্চে। এই বিষয়ে মামলাকারী ও মহারাষ্ট্র সরকারের আইনজীবীর বক্তব্য শোনার পর তদন্ত প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ জারির আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতিরা। তবে এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কতদূর তদন্ত হয়েছে তার রিপোর্ট মহারাষ্ট্র পুলিশকে অবিলম্বে জমা দিতে বলেন তাঁরা। চার সপ্তাহ পরে এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, শুনানির সময় সরকার পক্ষের আইনজীবী জানান যে ইতিমধ্যেই এই হত্যাকাণ্ডের তদন্তের জন্য একটি উচ্চপর্যায়ের কমিটি তৈরি করেছে রাজ্য সরকার। তদন্তের ভার রাজ্যের গোয়েন্দা দপ্তর অর্থাৎ সিআইডি (CID) – এর হাতেও তুলে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ ১১৫ জনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: বিয়ে করতে ১০০ কিমি পথ পাড়ি সাইকেলে, বউ নিয়ে ঘরে ফিরলেন যুবক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement