১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সম্পত্তির হিসেব দিতে হবে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলিকে, নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: August 23, 2018 3:48 pm|    Updated: August 23, 2018 3:48 pm

Scrutinize assets of religious shrines: SC

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধর্মের নামে কোটি-কোটি টাকার ব্যবসায় এবার হয়তো জল ঢালতে চলেছে সুপ্রিম কোর্টের নয়া নির্দেশিকা৷ অবিলম্বে দেশের প্রত্যেক ধর্মীয় স্থান ও প্রতিষ্ঠানে ‘অডিট’ করানোর নির্দেশ কার্যকর হতে চলেছে৷ ‘জুডিশিয়াল অডিট’-এর মাধ্যমে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলির পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা থেকে শুরু করে স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির খতিয়ান এবার থেকে রাখবে কোর্ট। এর জন্য সমস্ত হিসব-নিকেশ খাতা-কলমে যাচাই করা হবে বলে জুলাইয়ে নির্দেশ জারি করে দেশের শীর্ষ আদালত৷ সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে দেশের সমস্ত মন্দির, মসজিদ, গির্জা ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলিতে এই অডিট বাধ্যতামূলক হতে চলেছে৷

[‘বাড়ি কখনও নোংরা রাখতে আছে?’, ত্রাণশিবির পরিষ্কার করে কৃতজ্ঞতার বার্তা]

একটি মামলার শুনানিতে বিচারপতি আদর্শ কে গোয়েল ও এস আবদুল নাজিরের বেঞ্চ জানিয়েছিল, ধর্মীয় স্থানে আয়-ব্যয়ের হিসাব সহ বিস্তারিত তথ্য যাচাই করা হবে৷ ধর্মীয় স্থানে দর্শনার্থীদের সমস্যার সমাধান ও সম্পত্তির দেখভাল-সহ পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা কথাও বলা হয়৷ জারি হয় আয়ের উৎস্য জানিয়ে অডিট করারও নির্দেশ৷ জানা গিয়েছে, কয়েক সপ্তাহের মধ্যে কার্যকর হবে এই নয়া নির্দেশ৷ ধর্মীয় স্থান বা প্রতিষ্ঠানগুলির বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ এলে তা খতিয়ে দেখতে ও প্রত্যেক জেলার জেলাশাসককে তাঁর দায়িত্ব বুঝে নিতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত৷

[‘সংসদে মোদিকে আলিঙ্গনের করাটা ভালভাবে নেননি দলের একাংশ’]

বর্তমানে ভারতে ২০ লক্ষেরও বেশি মন্দির রয়েছে৷ এছাড়া তিন লক্ষের বেশি মসজিদ ও কয়েক হাজার গির্জা রয়েছে৷ শুধুমাত্র তামিলনাড়ুতেই ৭ হাজার অ্যান্টিক মন্দির রয়েছে৷ নির্দেশে জানানো হয়েছে, দেশের সমস্ত প্রতিষ্ঠান এই ‘জুডিশিয়াল অডিটে’র আওতায় থাকবে৷ পর্যবেক্ষক মহলের ধারণা, নয়া এই নির্দেশ কার্যকর হলে আগামী দিনে ধর্মের নামে গচ্ছিত কোটি কোটি কালো টাকার সন্ধান পাবে কেন্দ্র৷ এতদিন আয়কর ও বার্ষিক অডিট করানোর ক্ষেত্রে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলিকে নিয়মে বাঁধতে পারেনি কেন্দ্র৷ তবে মনে করা হচ্ছে, সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশ কার্যকর হলে কালো টাকার উৎস্য খুঁজতে খুব একটা বেগ পেতে হবে না কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের আধিকারিকদের৷  

[‘আমাকে মেরে পথের কাঁটা সরাতে চাইছে বিজেপি’, বিস্ফোরক তেজপ্রতাপ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে