BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘করোনা আবহে ভারতে মুসলিম বিদ্বেষ বেড়েছে’, লাহোর সাহিত্য উৎসবে বিতর্কিত মন্তব্য থারুরের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 18, 2020 10:23 am|    Updated: October 18, 2020 10:23 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মঞ্চটা ছিল লাহোর সাহিত্য উৎসবের। আর সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ফের বিতর্কের জন্ম দিলেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর (Shashi Tharoor)। বলে দিলেন, করোনা পরিস্থিতিতে আমাদের মহামারীর থেকেও বেশি লড়তে হচ্ছে মুসলিম বিদ্বেষ আর কুসংস্কারের বিরুদ্ধে। বললেন, ভারত সরকার করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ। কংগ্রেস সাংসদের এই মন্তব্যে স্বাভাবিকভাবেই চটেছে বিজেপি। তাঁরা বলছে, কংগ্রেসের পাকিস্তান প্রেম তো নতুন কিছু নয়। আরও একবার থারুর পাকিস্তানের মাটিতে ভারতকে বদনাম করার চেষ্টা করলেন।

করোনা কালে এবার ভারচুয়ালি হচ্ছে পাকিস্তানের অন্যতম বড় সাহিত্য উৎসব। লাহোর সাহিত্য উৎসবের সেই মঞ্চে ভারচুয়ালি কংগ্রেস (Congress) সাংসদ বললেন, “ভারত সরকার এখনও এর গুরুত্বটা বুঝল না। রাহুল গান্ধী সেই ফেব্রুয়ারিতেই সতর্ক করেছিলেন, এই মহামারীর জন্য প্রস্তুত না হলে দেশে অর্থনৈতিক বিপর্যয় নেমে আসবে। রাহুলের (Rahul Gandhi) এর জন্য প্রশংসা প্রাপ্য।” কংগ্রেস সাংসদের দাবি,”এই মহামারীর কারণে, আমাদের দেশে মুসলিমদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ সৃষ্টি হচ্ছে। কুসংস্কার সৃষ্টি হচ্ছে। আমাদের এসবের বিরুদ্ধে লড়তে হচ্ছে।” থারুরের দাবি, তবলিঘি জামাতের সমাবেশকে দেশের দুর্দশার একমাত্র কারণ হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা হয়েছে। অথচ, ট্রাম্পের অনুষ্ঠান নিয়ে সেভাবে কিছুই বলা হয়নি। আসলে এই মহামারীতে দেশে মুসলিম বিদ্বেষ আরও বাড়ছে।

[আরও পড়ুন: ‘পরিবর্তন অবশ্যম্ভাবী, বাংলায় সরকার গড়বে বিজেপিই’, হুঙ্কার অমিত শাহর]

কংগ্রেস সাংসদের এই মন্তব্যে স্বাভাবিকভাবেই বেজায় চটেছে বিজেপি (BJP)। দলের এক মুখপাত্র বলছিলেন, কংগ্রেসের পাকিস্তান প্রেম কারও অজানা নয়। বিদেশের মাটিতে দেশকে এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বদনাম করাটাই ওদের একমাত্র কাজ। রাহুল গান্ধীকে যেভাবে আধুনিক যুগের নস্ত্রাদামুস হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে, সেটাও নেহাতই বোকা বোকা। উল্লেখ্য, দেশে করোনা ছড়ানো নিয়ে তবলিঘি জামাতের যে বিস্তর সমালোচনা হয়েছে, সেটা যে যুক্তিযুক্ত নয়, সেটা মেনে নিয়েছেন খোদ দেশের প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদেও। কিন্তু তা বলে পাকিস্তানের মঞ্চে দাঁড়িয়ে এভাবে দেশের ‘বদনাম’ করাটা মেনে নিতে রাজি নয় বিজেপি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement