১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মুম্বইয়ে করাচি সুইটসের নাম বদলের দাবি, দোকানের মালিককে হুমকি শিব সেনা নেতার

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 19, 2020 6:49 pm|    Updated: November 19, 2020 6:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বেশ কিছুদিন ধরে দেশে পাকিস্তান বিরোধিতার হাওয়া বেশ জোরালো হয়েছে। তার জেরে এবার করাচি সুইটস নামে একটি মিষ্টির দোকানে গিয়ে তার নাম বদলানোর দাবি জানালেন মহারাষ্ট্রের এক শিব সেনা নীতীন নন্দ গাওনকর। যদিও তাঁর বক্তব্যের ভাইরাল হওয়া ভিডিও নিয়ে বিতর্ক হতেই এর সঙ্গে শিব সেনার কোনও যোগ নেই বলে দাবি করেছেন দলের মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি মুম্বইয়ের বান্দ্রা-পশ্চিম এলাকায় থাকা ‘করাচি সুইটস (Karachi Sweets)’ নামে একটি মিষ্টির দোকানে গিয়ে তার নাম বদলের দাবি জানান স্থানীয় শিব সেনা নেতা নীতীন নন্দগাওনকর (Nitin Nandgaonkar )। রীতিমতো হুমকি দিয়ে বলেন, করাচি নামটাকে ঘৃণা করি আমরা। তাই অবিলম্বে ওই নামটি পালটে মারাঠি ভাষায় কোনও নাম রাখতে হবে। কারণ, পাকিস্তান ও করাচি সমার্থক শব্দ। শিব সেনা নেতার সঙ্গে মিষ্টির দোকানদারের কথোপকথনের সময়ে তোলা একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, দোকানের নাম বদলের বিষয়ে মালিককে নির্দেশ দিচ্ছেন ওই শিব সেনা নেতা। অবিলম্বে নাম বদলনো না হলে পরিস্থিতি খারাপ হবে বলেও হুমকি দেন তিনি।

[আরও পড়ুন: আগামী চার মাসেই তৈরি হয়ে যাবে করোনা ভ্যাকসিন, নয়া সম্ভাবনার কথা শোনালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ]

এর উত্তরে করাচি সুইটসের মালিক জানান, তার পূর্বপুরুষরা করাচি থেকে ভারতে এসেছিলেন, তাই দোকানের নাম দেওয়া হয়েছে করাচি সুইটস। এর পিছনে অন্য কোনও কারণ নেই। কিন্তু, কোনও যুক্তি শুনতে রাজি হননি শিব সেনা নেতা। তিনি সাফ জানিয়ে দেন, করাচি পাকিস্তানে। ফলে এই নাম নিয়ে তাদের আপত্তি রয়েছে। শুধু দোকানের নাম বদলালেই হবে না, সরকারি নথিতেও তা বদলে ফেলতে হবে। পূর্বপুরুষদের কারও নামে দোকানের নামকরণ করার জন্যও পরামর্শ দেন তিনি। দোকানদারকে তিনি মনে করে দেন, কয়েক দিন আগেও পাকিস্তানের হামলায় দেশের বেশ কয়েকজন সেনা জওয়ান শহিদ হয়েছেন। তাই ওই নাম বদলাতে হবে।

যদিও এই বিষয়টি নিয়ে শোরগোল শুরু হতেই শিব সেনার তরফে ওই নেতার বক্তব্যের বিরোধিতা করে একে তাঁর নিজস্ব মতামত বলে দাবি করা হয়েছে। এপ্রসঙ্গে সঞ্জয় রাউত টুইট করেন, করাচি বেকারি ও সুইটস গত ৬০ বছরের সময় ধরে মুম্বইয়ে রয়েছে। তাদের সঙ্গে পাকিস্তানের কোনও সম্পর্ক নেই। তাই ওই দোকানের নাম বদলের দাবি তোলা অযৌক্তিক। এটার বিষয়ে শিব সেনার অন্দরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

[আরও পড়ুন: রাজ্যের সম্মতি ছাড়া CBI তদন্তের নির্দেশ দেওয়া যাবে না, স্পষ্ট জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement