১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

“রাজ্যে থাকতে হলে কলেজ পড়ুয়াদের গাইতে হবে বন্দে মাতরম ও জনগণমন”

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 7, 2017 3:01 pm|    Updated: December 18, 2019 5:51 pm

'Sing Vande Mataram or leave', Uttarakhand minister issues diktat

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যে থাকতে হলে জাতীয় সংগীত এবং ‘বন্দে মাতরম’ গাইতে হবে সমস্ত ছাত্রদের। আগামী জুলাই মাস থেকে এমন নিয়মই আনতে চলেছে উত্তরাখণ্ড সরকার। জানিয়েছেন সে রাজ্যের উচ্চ শিক্ষামন্ত্রী ধান সিং রাওয়াত।

[দু’টো স্কুলের খরচ জোগান শহরের এই ট্যাক্সিচালক]

রুরকিতে কলেজ ছাত্রছাত্রীদের একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘উত্তরাখণ্ডে থাকতে হলে বন্দে মাতরম গাইতে হবে।’ তিনি আরও জানান, প্রত্যেক কলেজে সকাল ১০ টায় জাতীয় সংগীত বাজবে এবং বিকেল ৪টেয় বন্দে মাতরম বাজানো হবে। এর পাশাপাশি কলেজগুলিতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তরের ছাত্রছাত্রীদের জন্যও আলাদা পোশাকবিধি চালু করার কথাও জানিয়েছেন তিনি। এই সমস্ত নিয়মই আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে চালু করার কথা ভাবছে উত্তরাখণ্ড সরকার।

[তুষারঝড়ে হিমাচল প্রদেশে আটক কমপক্ষে ৭৫ জন বাঙালি পর্যটক]

যদিও পরে ধান সিং রাওয়াত এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমার কথার ভুল মানে করা হয়েছে। সংবাদমাধ্যমে আমার পুরো বক্তব্যের ভিডিওটি দেখানো হয়নি। আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে আমরা কলেজ এবং স্কুলগুলিতে বন্দেমাতরম গাওয়ার নিয়ম আনতে চলেছি। সবাইকেই গাইতে হবে। আর আমাদের রাজ্যে কেউ এই ব্যাপারে আপত্তি জানায়নি।’তবে দান সিংয়ের এই কথায় ইতিমধ্যে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে।

[২৫ নয়া চুক্তির প্রস্তাব নিয়ে দিল্লিতে হাসিনা, রাতেই পৌঁছচ্ছেন মমতা]

এর আগে গত সপ্তাহে মিরাটের মেয়র হরিকান্ত আলুয়ালিয়া জানিয়েছিলেন, যেসব সদস্য বন্দে মাতরম গাইতে অস্বীকার করবে তাঁরা ভবিষ্যতে নগর নিগমের কোনও কাজে অংশ নিতে পারবে না। মিরাটের ছাড়াও এই বিষয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে এলাহাবাদ নগর নিগমে। সেখানকার বিজেপি কাউন্সিলররা গত বৃহস্পতিবার নতুন আইনের দাবি তোলেন। সেই আইন অনুযায়ী, এলাহাবাদ নগর নিগমে প্রতিদিন সরকারিভাবে কাজ শুরুর আগে বন্দে মাতরম এবং শেষে জাতীয় সংগীত জনগণমন গাইতে হবে।

[দু’টো স্কুলের খরচ জোগান শহরের এই ট্যাক্সিচালক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে