ad
ad

Breaking News

হিন্দু নন, তাই মন্দিরে ঢোকার অনুমতি নেই এই কিংবদন্তি শিল্পীরও

অথচ, মন্দিরে বাজে তাঁরই ভক্তিগীতি।

Singer Yesudas seeks permission to enter Padmanabhaswamy Temple
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:September 17, 2017 3:12 pm
  • Updated:September 19, 2017 12:30 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দক্ষিণ ভারতে তাঁর গাওয়া ভক্তিগীতির জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া। কেরলের একটি মন্দিরে নিয়মিত তাঁর ভক্তিগীতি বাজানো হয়। কিন্তু, তাতে কী! শিল্পী যে হিন্দু নন। তাই সেই মন্দিরে ঢোকার অনুমতি নেই। তাই এবার তিরুঅনন্তপুরমের পদ্মানাভাস্বামী মন্দির ঢোকার জন্য অনুমতি চাইলেন সংগীত শিল্পী জেসুদাস। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর, বিজয়া দশমীর দিন,  মন্দিরে ঢোকার অনুমতি চেয়ে মন্দির কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছেন তিনি। আগামী সোমবার মন্দিরের কার্যকরী কমিটি বৈঠকে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে জানিয়েছেন পদ্মানাভাস্বামী মন্দিরের এগজিকিউটিভ অফিসার ভি রথসেন।

[গোরক্ষপুর শিশুদের মৃত্যুমিছিল, ধৃত অক্সিজেন সরবরাহকারী সংস্থার মালিক]

কেরলের সবরিমালা মন্দির ও কর্নাটকের কোল্লুর মোকাম্বিকা মন্দিরে নিয়মিতই যান জেসুদাস। কেরলের গুরুভায়ুর শহরের একটি মন্দিরে তো আবার তাঁর গাওয়া ভক্তিগীত বাজিয়ে শ্রীকৃষ্ণের ঘুম ভাঙানো হয়। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত সেই মন্দিরে জেসুদাসকে ঢোকার অনুমতি দেয়নি মন্দির কর্তৃপক্ষ। কারণ, শিল্পী হিন্দু নন, তিনি খ্রিস্টান। ১৯৬০ সালে একবার গুরুভায়ুর শহরের ওই শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরে জেসুদাসের গুরু চেম্বাই বৈদ্যনাথ ভাগাবথরকে গান গাওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। কিন্তু, শিষ্যকে মন্দিরে ঢোকার অনুমতি না দেওয়ার কথা জানতে পেরে ক্ষুদ্ধ হন তিনি। মন্দিরের ভিতরে ঢোকেননি চেম্বাই বৈদ্যনাথ ভাগাবথরও। রাতভর মন্দিরে বাইরেই অনুষ্ঠান করেছিলেন তিনি। তারপরও অবশ্য জেসুদাসকে শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হয়নি। তাই এবার তিরুঅনন্তপুরমে পদ্মানাভাস্বামী মন্দির ঢোকার জন্য আগেভাগেই অনুমতি চেয়ে মন্দির কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছেন কিংবদন্তী এই সংগীত শিল্পী। চিঠিতে জেসুদাস লিখেছেন, জন্মসূত্রে খ্রিস্টান হলেও, তিনি হিন্দু ধর্মে বিশ্বাস করেন। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর, বিজয়া দশমীর দিন, পদ্মানাভাস্বামী মন্দিরে ভক্তগীতি পরিবেশন করতে চান।

[১২০০ গরুর প্রাণ বাঁচিয়ে ভারতকেই ‘স্বদেশ’ ভাবেন এই বিদেশিনী]

আগামী সোমবার পদ্মানাভাস্বামী মন্দিরের কার্যকরী কমিটি বৈঠক। সেই বৈঠকেই জেসুদাসকে মন্দির ঢোকার অনুমতি দেওয়া হবে কিনা, সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। যদিও পদ্মানাভাস্বামী মন্দিরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘মন্দির ঢোকার অনুমতি পেতে কোনও সমস্যা হবে না। মন্দিরে অনেক বিদেশি ভক্তও আসেন। তাঁদের শুধুমাত্র হলফনামা দিয়ে জানাতে হয়, তাঁরা হিন্দু ধর্মে বিশ্বাস করেন। তাই জেসুদাসকে মন্দিরে ঢোকার অনুমতি না দেওয়ার কোনও কারণ নেই।

[SBI-তে অ্যাকাউন্ট রয়েছে, এই খবরটি জানেন কি?]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ