BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মর্মান্তিক! অজান্তেই করোনায় মৃত মায়ের দেহ কাঁধে নিয়ে মৃত্যু ৫ ছেলের, শেষ গোটা পরিবার

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 21, 2020 8:39 pm|    Updated: July 21, 2020 8:39 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মর্মান্তিক! করোনা আক্রান্ত মায়ের মৃত্যুর পর শেষযাত্রায় কাঁধ দিয়েছিলেন পাঁচ ছেলে। পরিণতিও সেই একই হল। করোনা আক্রান্ত হয়ে দিন পনেরোর মধ্যেই মৃত্যু ঘটল পাঁচ ছেলের। মাত্র কিছুদিনের ব্যবধানে শেষ হয়ে গেল গোটা পরিবার! রোজই দেশে করোনা আক্রান্তের পরিসংখ্যান যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে, তা ভাঁজ ফেলে দিয়েছে বিশেষজ্ঞদের কপালেও।

মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ড (Jharkhand)। গত জুন মাসের কথা। একটি পারিবারিক বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিল ঝাড়খণ্ডের ওই পরিবার। স্বাভাবিকবশতই আনন্দানুষ্ঠানে আত্মীয় পরিজনদের সঙ্গে মেতে উঠেছিল তারা সকলেই। সেখানেই ঘটে বিপত্তি! কারণ, ওই অনুষ্ঠান থেকেই সংক্রামিত হন পরিবারের সবথেকে বয়স্ক মানুষটি। অর্থাৎ ৫ ছেলের মা। আশির বৃদ্ধা করোনা আতঙ্ক কাটিয়ে অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন। এরপর সেখান থেকে ফিরেই ক্রমশ অসুস্থ হওয়ায় তাঁকে বাড়িতে রাখা অসম্ভব হয়ে পড়ে। ভরতি করা হয় হাসপাতালে। দিন পনেরো আগে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পরই জানা যায় যে, ওই বৃদ্ধা করোনা আক্রান্ত ছিলেন। তবে তখন তো সব কাজ শেষ! ততক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: বিক্ষোভ সামালাতে পদক্ষেপ! করোনায় মৃত কর্মীদের আর্থিক সাহায্য ঘোষণা এয়ার ইন্ডিয়া]

এদিকে, মায়ের শেষকৃত্যে তাঁরাই মায়ের দেহ কাঁধে করে নিয়ে যান শ্মশানে। অন্ত্যেষ্টি সম্পূর্ণ করে বাড়িতে ফিরতেই যেন ছেলেদের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে! কেন? কারণ, তখনই হাসপাতাল থেকে খবর আসে যে, ওই বৃদ্ধা করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। পরেরটা আন্দাজ করা খুব একটা অসম্ভব নয়! একে একে বৃদ্ধার সব সন্তানই অসুস্থ হয়ে পড়তে থাকে। তড়িঘড়ি সকলকেই ভরতি করতে হয় হাসপাতালে। আর বিধির কী লিখন! মা চলে যাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যেই তাঁর পাঁচ সন্তানও করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, ৫ জনের মধ্যে এক ছেলে ক্যানসারাক্রান্ত ছিলেন। ফলে তাঁর মৃত্যু ক্যানসারে হয়েছে ধরে নেওয়া গেলেও বাকি ৪ ছেলের মৃত্যুই হয়েছে করোনায়। অর্থাৎ ১৫ দিনের ব্যবধানে গোটা পরিবারটাই শেষ হয়ে গেল!

[আরও পড়ুন: করোনার কোপে এবছরের মতো বাতিল অমরনাথ যাত্রা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement