১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মহারাষ্ট্রের মন্ত্রিত্ব নিয়ে টানাটানি অব্যাহত, কংগ্রেসকে খোঁচা শিব সেনার

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 3, 2020 5:15 pm|    Updated: January 3, 2020 5:15 pm

Smoke rising in Congress: Saamana spotlights on Thackeray cabinet

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রের মন্ত্রিসভায় মন্ত্রিত্ব নিয়ে দড়ি টানাটানি চলছেই। ইতিমধ্যে শিব সেনার ঝুলিতে এসেছে ১৫টি মন্ত্রিত্ব। অথচ এনসিপি পেয়েছে ১৬টি দপ্তর। মুখ্যমন্ত্রী তথা শিব সেনা প্রধানের এই সিদ্ধান্তে চটেছেন কয়েকজন বর্ষীয়ান দলীয় নেতাও। এদিকে মন্ত্রিত্ব না পাওয়ায় প্রকাশ্যে কংগ্রেসের অভ্যন্তরীণ কোন্দলও। তাঁদের এই কোন্দলকে শিব সেনার মুখপত্র সামনায় কটাক্ষ করা হয়েছে।

মহারাষ্ট্রে মন্ত্রিত্বের নিরিখেও বাকি দুই শরিকের চেয়ে এগিয়ে NCP। উদ্ধবের মন্ত্রিসভায় এই মুহূর্তে ১৬টি পদ রয়েছে তাদের। শিবসেনার হাতে রয়েছে ১৫টি। তার মধ্যেই স্বরাষ্ট্র, অর্থ এবং সেচ মন্ত্রকও এনসিপি-র হাতে যেতে পারে বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু জোট শরিক NCP-কে অতিরিক্ত মন্ত্রক দেওয়া নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। সূত্রের খবর, মহারাষ্ট্রে জোট সরকার গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার। তাই তাঁর দলকে অতিরিক্ত দফতর দেওয়া হচ্ছে। এদিকে এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ শিব সেনার বর্ষীয়ান নেতা সঞ্জয় রাউত। অভিযোগ, তাঁর ভাইকে মন্ত্রী করার কথা দিয়েও সে কথা রাখেননি উদ্ধব। আর তাই শপথগ্রহণের অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিলেন সঞ্জয় রাউত। যদিও সে কথা মানতে নারাজ তিনি। তবে বিক্ষুব্ধদের তালিকায় রয়েছেন ভাস্কর যাদব, প্রতাপ সরনায়ক, প্রকাশ অবিৎকার এবং তানাজি সবন্তের মতো বিধায়করা।

[আরও পড়ুন : ভূতবিদ্যা নিয়ে হাসিঠাট্টার ফল! বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়কে নাম পরিবর্তনের আরজি বিশিষ্টদের]

মন্ত্রিত্ব নিয়ে কংগ্রেসের অভ্যন্তরেও টানাপোড়েন চলছে। সেই টানাপোড়েন নিয়ে শিব সেনার মুখপত্র সামনায় কটাক্ষ করা হয়েছে। সূত্রের খবর, রাজস্ব দফতরের মন্ত্রিত্ব নিয়ে মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অশোক চহ্বান ও কংগ্রেস নেতা বালাসাহেব থোরাতের মধ্যে টানাপোড়েন চলছে। সামনায় লেখা হয়েছে, “অশোক চহ্বান অভিজ্ঞ। তিনি ক্যাবিনেটে রয়েছেন। তাঁকে সম্মানজনক পদ দেওয়া হবে। মনে করা হচ্ছিল তাঁকে রাজস্ব মন্ত্রী করা হবে। কিন্তু কংগ্রেস নেতা বালাসাহেব থোরাতও ওই পদ চাইছেন। এখন দেখা যাক, কী হয়!”

[আরও পড়ুন : হাসপাতালে মৃত ১০৪ শিশু, মন্ত্রীর পায়ের তলায় কার্পেট পাততে ব্যস্ত কর্তৃপক্ষ]

কংগ্রেস নেতা সংগ্রাম থপতে কোনও মন্ত্রিত্ব না পাওয়ায় তাঁর অনুগামী বিক্ষোভ দেখিয়েছিল। সেই বিক্ষোভকে কটাক্ষ করে সামনায় লেখা হয়েছে, “এতদিন শিব সেনার কর্মীদের বিক্ষোভকে গুন্ডাগিরি বলত কংগ্রেস। এবার ওদের বিক্ষোভকে কী বলে হবে?”        

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে