BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাহুলের পথের কাঁটা নন, তাই মনমোহনকে প্রধানমন্ত্রী করেন সোনিয়া! ফের বিতর্কে ওবামা

Published by: Biswadip Dey |    Posted: November 17, 2020 10:14 am|    Updated: November 17, 2020 11:44 am

An Images

Barrack-Congress

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার (Barack Obama) স্মৃতিকথা ‘আ প্রমিসড ল্যান্ড’ বইয়ে রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) সম্পর্কে যে বক্তব্য রয়েছে, তাকে ঘিরে ইতিমধ্যেই বিতর্ক শুরু হয়ে গিয়েছে। কেবল কংগ্রেসই নয়, শিব সেনাও কটাক্ষ করেছে ওবামাকে। এই পরিস্থিতিতে জানা গিয়েছে, ওবামার বইতে মনমোহন সিংয়ের (Manmohan Singh) প্রধানমন্ত্রী হওয়া সম্পর্কেও বিস্ফোরক দাবি করা হয়েছে। যা ইতিমধ্যেই বিজেপির হাতিয়ার হতে শুরু করেছে।

এমনিতে মনমোহন সম্পর্কে ঢালাও প্রশংসাই করেছেন ওবামা। দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘উনি একজন নিরাসক্ত ন‌্যায়পরায়ণ ব‌্যক্তি।’ ১৯৯০ সালে ভারতে অর্থনীতির উদারীকরণ শুরু হয়। দেশের এই বাজার নির্ভর অর্থনীতির প্রধান রূপকার হিসেবে মনমোহন সিংয়ের নাম করেছেন ওবামা। সংখ্যালঘু শিখ সম্প্রদায়ের একজন সদস্য হিসেবেও শেষপর্যন্ত তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন বলে উল্লেখ করেন  প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। মনমোহন সিংকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়ে তিনি জানিয়েছেন, ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মানুষের বিশ্বাস অর্জন করেছিলেন। কোনও প্রতিশ্রুতি দিয়ে নয়, সত্যিই মানুষের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন ঘটিয়ে সেটা পেয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি তাঁর দুর্নীতির সংস্রব এড়িয়ে চলা স্বচ্ছ ভাবমূর্তিরও প্রশংসা করেছেন ওবামা।

[আরও পড়ুন: ‌কোভ্যাক্সিনের চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু, আশা উজ্জ্বল করে ঘোষণা ভারত বায়োটেকের]

মনমোহন সিংয়ের প্রধানমন্ত্রিত্ব সম্পর্কে এত কথা বলার মাঝেই বিতর্কে ইন্ধন জুগিয়ে ওবামা লেখেন, ভারতীয় রাজনীতি ধর্ম, জাতপাতের মধ্যেই নিমজ্জিত রয়েছে। মনমোহনের প্রধানমন্ত্রীর মসনদে বসাকে অনেকেই সাম্প্রদায়িক বিভাজনের ঊর্ধ্বে উঠে দেশের উন্নতির এক প্রতীক বলে মনে করে। কিন্তু আসল ব্যাপারটা আদৌ তা নয়।

ওবামা পরিষ্কার দাবি করেছেন, ‘‘একাধিক রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মনে করেন, সোনিয়া গান্ধী মনমোহনকে বেছে নিয়েছিলেন, তার পিছনে কারণ ছিল। আসলে সেই অর্থে জাতীয় রাজনীতিতে কোনও ভিত না থাকা একজন অগ্রজ শিখ নেতা তাঁর চল্লিশ বছরের ছেলের জন্য ঝুঁকিবহুল হবেন না, এটা বুঝতে পেরেই তাঁকে প্রধানমন্ত্রী করেন সোনিয়া গান্ধী (Sonia Gandhi)।’’

[আরও পড়ুন: ইন্ডিয়া গেটের সামনে নেতাজির মূর্তি বসানোর আবেদন, অনলাইন পিটিশনে সাড়া নেটিজেনদের]

তবে কেবল কংগ্রেসই নয়, বিজেপিকেও অস্বস্তিতে ফেলেছেন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সমালোচনা করেছেন গেরুয়া শিবিরের ‘বিভাজনমূলক রাজনীতি’র। লোকসভায় কংগ্রেসের নেতা অধীর চৌধুরী ইতিমধ্যেই ওবামাকে আক্রমণ করেছেন। রাহুল গান্ধীকে ‘শিক্ষককে তুষ্ট করার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া ছাত্র’ বলেছেন ওবামা। সেই প্রসঙ্গে অধীর তাঁকে ‘কুয়োর ব্যাঙ’ মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসার হুঁশিয়ারি দেন। শিব সেনা নেতা সঞ্জয় রাউত প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘ওবামা এই দেশ সম্পর্কে কতটুকু জানেন?’’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement