BREAKING NEWS

২  ভাদ্র  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

হাসপাতালে ঘুমন্ত মায়ের পাশ থেকে সদ্যোজাতকে তুলে নিয়ে গিয়ে খুবলে খেল কুকুর

Published by: Biswadip Dey |    Posted: June 29, 2022 1:10 pm|    Updated: June 29, 2022 1:10 pm

Stray Dog Mauls 3-day-old Baby to Death in Panipath। Sangbad Pratidin

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘুমন্ত মায়ের পাশ থেকে সদ্যোজাত শিশুকে তুলে নিয়ে গেল কুকুর (Dog)! যখন সন্ধান মিলল ততক্ষণে তার কামড়ে রক্তাক্ত হয়ে গিয়েছে মাত্র তিন দিনের শিশুটি। অনেক চেষ্টা সত্ত্বেও বাঁচানো গেল না একরত্তিকে। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে হরিয়ানার (Haryana) পানিপথের এক হাসপাতালে। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

ঠিক কী হয়েছিল? জানা গিয়েছে, বেসরকারি একটি হাসপাতালে গত ২৫ জুন ওই শিশুটির জন্ম হয়। গতকাল, মঙ্গলবার শিশুটিকে নিয়ে ঘুমোচ্ছিলেন তার মা। অন্য ওযার্ডে ঘুমোচ্ছিলেন তার ঠাকুমা ও কাকিমাও। সেই সময়ই সেখানে প্রবেশ করে কুকুরটি। সকলের অজান্তেই শিশুটিকে মুখে করে নিয়ে সে সেখান থেকে চলে যায়। পরে গভীর রাতে আচমকাই ঘুম ভেঙে ওই মহিলা দেখেন শিশুটি তার স্থানে নেই। শুরু হয় খোঁজ।

[আরও পড়ুন: ‘শান্তি বজায় রাখুন’, উদয়পুরের হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা করে বার্তা মমতার]

এরপরই হাসপাতালের কর্মীর আবিষ্কার করেন, হাসপাতালের পাশের ফাঁকা জমিতে শিশুটিকে নিয়ে গিয়েছে কুকুরটি। তার কবল থেকে যখন একরত্তিকে উদ্ধার করা হয়, তখন সে রক্তাক্ত হয়ে গিয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘটনায় হাসপাতালে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। প্রশ্ন ওঠে কী করে হাসপাতালের ভিতর থেকে এভাবে শিশুটিকে তুলে নিয়ে যেতে পারল কুকুরটি।

পরে উত্তেজনা আরও বাড়লে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। শিশুটির দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। কী করে এমন ঘটনা ঘটল খতিয়ে দেখছে পুলিশ। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করছে শিশুটির পরিবার। অবশ্য হাসপাতালের দাবি, শিশুটির পরিবারের একাধিক সদস্য সেখানে উপস্থিত ছিলেন। তাঁরা সেটি খেয়াল করলেন না কেন প্রশ্ন তুলছে কর্তৃপক্ষ।

[আরও পড়ুন: উদয়পুর হত্যাকাণ্ডে আইসিস যোগের জল্পনা, তদন্তে নামল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে