BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিশ্বে প্রথমবার বালুকা শিল্পের কোর্স চালু করছে IGNOU

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 20, 2017 1:42 pm|    Updated: December 20, 2017 1:42 pm

Sudarshan to start world’s first online sand art course

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বালুকা শিল্পী সুদর্শন পট্টনায়েকের সৃষ্টি মোহিত করে মানুষকে। সমুদ্র সৈকতে তাঁর হাতের জাদুতে জীবন্ত হয়ে ওঠে বালি। হাতে দু’মুঠো বালি পেলেই যে বিষয়ের ভারচুয়াল ছবি তুলে ধরতে পারেন তিনি। অনেক উঠতি শিল্পীই মনে মনে সুদর্শন হয়ে উঠতে চান। কিন্তু সুযোগের অভাবে তা হয় না। তবে এবার হবে। কারণ এবার ইন্দিরা গান্ধী মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (ইগনু) চালু করছে বালুকা শিল্পের উপর বিশেষ কোর্স।

[বিরাটের দেশপ্রেম নিয়ে খোঁচা দিয়ে দলেই ভর্ৎসনার মুখে বিজেপি নেতা]

পদ্মশ্রী পুরস্কার প্রাপ্ত সুদর্শনের দীর্ঘদিনের ইচ্ছা ছিল তাঁর শিল্পকে যেন শিক্ষাক্ষেত্রে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। যাতে এই শিল্পে আগ্রহী পড়ুয়ারা এই শিল্পের খুঁটিনাটি সবকিছুই শিখতে পারেন। গত বছরই ইগনুকে একটি কোর্স চালু করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন বালুকা শিল্পী। অবশেষে তাঁর স্বপ্নপূরণ হতে চলেছে। ইগনুর তরফে জানানো হয়েছে, আগামী বছরের ৩১ মার্চের মধ্যেই নতুন এই কোর্স চালু হয়ে যাবে। ভুবনেশ্বরের ইগনু সেন্টারের সিনিয়র আঞ্চলিক ডিরেক্টর শ্রীকান্ত মহাপাত্র জানান, “কীভাবে অনলাইনে ভিডিওর মাধ্যমে পড়ুয়াদের বালুকা শিল্পের শিক্ষাদান করা হবে, তার জন্য আমরা প্রস্তুতি নিতে শুরু করে দিয়েছি। MOOC বা ম্যাসিভ ওপেন অনলাইন কোর্সের নিয়ম মেনেই এই কোর্স পড়ানো হবে। কোর্স শেষে শিল্পীরা হাতে পাবেন শংসাপত্র।” ইগনু অবশেষে সবুজ সংকেত দেওয়ায় উচ্ছ্বসিত গিনেস বুকে নাম লেখানো সুদর্শন। বিশ্বে প্রথমবার অনলাইনে এই কোর্স পড়ানো হবে।

[তাণ্ডব চালিয়ে স্টেশনে আগুন, মাওবাদীদের হাতে অপহৃত সহকারী স্টেশন মাস্টার]

সম্প্রতি ইগনুর তরফে উমা কাঞ্জিলাল ভূবনেশ্বরে গিয়ে সুদর্শনের সঙ্গে কথা বলে এসেছেন। বালুকা শিল্পে কোন কোন বিষয় পড়ানো হবে, তার সিলেবাস এবং ডিজাইন তৈরি করছেন সুদর্শনই। পুরীর সমুদ্র সৈকতে গোল্ডেন স্যান্ড আর্ট ইনস্টিটিউশন নামে তাঁর নিজস্ব প্রতিষ্ঠান আছে। যেখানে অনেককেই নিজে হাতে প্রশিক্ষণ দেন এই বিশ্বখ্যাত শিল্পী। তিনি বলছেন, “ভিডিওর মাধ্যমে পড়ুয়াদের বালুকা শিল্পের শিক্ষা দিলে তাঁরা অনেক বেশি উপকৃত হবেন।” একাধিক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এই কোর্স চালু করার ইচ্ছাপ্রকাশ করলেও সুদর্শন দেয়েছিলেন সরকার স্বীকৃত কোনও বিশ্ববিদ্যালয়ে বিষয়টি অন্তর্ভূক্ত হোক। তাহলেই এই শিল্পের মহিমা সারা দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে। আর তাই এতদিন পর তাঁর স্বপ্নপূরণ হওয়ায় মুখে হাসি সুদর্শনের।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে