BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আবহে গণেশ উৎসবের ভবিষ্যৎ কী? চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য, মত সুপ্রিম কোর্টের

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 21, 2020 3:26 pm|    Updated: August 21, 2020 3:26 pm

An Images

দীপাঞ্জন মণ্ডল, নয়াদিল্লি: করোনা আবহে গণেশ চতুর্থী (Ganesh Chaturthi) নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য সরকার। আদালত এ বিষয় কোনও সিদ্ধান্ত নেবে না। জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। শুক্রবার জৈন ধর্মালম্বীদের জন্য দুদিন মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) তিনটি নির্দিষ্ট মন্দির খোলার নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত। কিন্তু এই নির্দেশ শুধুমাত্র এই তিন মন্দিরের জন্যই সীমাবদ্ধ তাও একবার মনে করিয়ে দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদে (S A Bobde)। একইসঙ্গে, হিন্দু মন্দিরও এসওপি মেনে খোলা যেতে পারে বলে মত প্রকাশ করেছেন দেশের প্রধান বিচারপতি।

জৈন ধর্মালম্বীদের বিশেষ ধর্মীয় অনুষ্ঠান চলছে। এই উৎসবের শেষ দুদিন বাইকুল্লা, দাদার ও চেম্বুরে জৈন মন্দির খুলে রাখার অনুমতি দিল শীর্ষ আদালত। এ প্রসঙ্গে প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ জানায়, “এই রায় অন্য শুধুমাত্র তিনটি মন্দিরের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। অন্যত্র নয়। বিশেষ করে গণেশ চতুর্থীর জন্য মহারাষ্ট্র ও দেশের অন্যত্র ভিড়ের বিষয় এই মত প্রযোজ্য নয়।” এ প্রসঙ্গে আদালত আরও জানায়, “গণেশ চতুর্থী নিয়ে রহাজ্যগুলি নিজস্ব সিদ্ধান্ত নেবে। এ বিষয়ে আদালত হস্তক্ষেপ করবে না।”  প্রসঙ্গত, Shri Parshwatilak Shwetamber Murtipujak Tapagacch Jain Trust দুদিনের জন্য মন্দিরে দর্শনার্থীদের আসার আনুমতি চেয়ে শীর্ষ আদালতেক দ্বারস্থ হয়েছিল। মহারাষ্ট্র সরকার তাঁদের এই আবেদনের বিরোধিতা করেছিল। 

 

[আরও পড়ুন : ১৩ মাসে আট সন্তানের জন্ম দিলেন ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধা! সরকারি অর্থ হাতাতে নয়া ছক]

এদিন শীর্ষ আদালতে মন্দির খোলার বিরোধিতা করেছিলেন আইনজীবী অভিষেক মনু সিংভি। তিনি এক্ষেত্রে করোনা আবহে কোন কোন অনুষ্ঠান বাতিল হয়েছে, তার তালিকাও প্রকাশ করেন। কিন্তু রথযাত্রা উদাহরণ টেনে এনে পালটা প্রধানমন্ত্রী বিচারপতি বলেন, “সামাজিক দূরত্ববিধি ও এসওপি মানলে, মন্দির-মসজিদ খোলা যেতেই পারে।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement