Advertisement
Advertisement
Supreme Court

‘যদি ০.০০১ শতাংশও গাফিলতি হয়, তাহলে…’, NEET মামলায় কড়া বার্তা শীর্ষ আদালতের

'পড়ুয়াদের কঠোর পরিশ্রমকে আমরা কোনওভাবেই অবহেলা করতে পারি না', বার্তা শীর্ষ আদালতের।

Supreme Court issued notice to NTA on NEET negligence case

প্রতীকী ছবি।

Published by: Amit Kumar Das
  • Posted:June 18, 2024 1:10 pm
  • Updated:June 18, 2024 1:48 pm

সোমনাথ রায়, নয়াদিল্লি: NEET পরীক্ষায় দুর্নীতি সংক্রান্ত মামলায় এবার শীর্ষ আদালতের তোপের মুখে পরীক্ষক সংস্থা ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি বা এনটিএ (NTA)। মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি চলাকালীন কড়া সুরে বিচারপতি জানালেন, ‘বাচ্চারা দীর্ঘদিন ধরে প্রস্তুতির পর এই পরীক্ষায় বসেছে। ফলে তাদের পরিশ্রমকে আমরা কোনওভাবেই অবহেলা করতে পারি না।’ একইসঙ্গে বিচারপতি জানান, ‘যদি কোনও তরফ থেকে ০.০০১ শতাংশও গাফিলতি হয়ে থাকে, তাহলে পুরোপুরি শোধরানো উচিত।’

ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ তুলে NEET পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে শীর্ষ আদালতে একাধিক মামলা দায়ের করেছেন পড়ুয়ারা। অভিযোগ, এই পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস, বেআইনিভাবে নম্বর বৃদ্ধির পাশাপাশি সন্দেহজনকভাবে ৬৭ জন প্রথম স্থান অধিকার করেছে। মঙ্গলবার সেই মামলার শুনানি চলছিল সুপ্রিম কোর্ট। শুনানিতে এনটিএকে তোপ দেগে আদালত জানায়, ‘ভেবে দেখুন একজন ডাক্তার কোনও শিশুর চিকিৎসা করছেন যিনি সন্দেহজনকভাবে পাশ করেছেন এবং তাঁর পরীক্ষায় পাশ নিয়ে তদন্ত চলছে।’

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘আজাদ কাশ্মীর’ মুছে ‘আর্টিকেল ৩৭০’, দ্বাদশ শ্রেণির সিলেবাসে চিন নিয়েও রদবদল NCERT-র]

এই পরীক্ষায় যদি কোনও ভুল হয়ে থাকে তবে তা সংশোধনের পরামর্শ দিয়ে আদালত জানায়, “পরীক্ষা পরিচালক সংস্থা হিসেবে আপনাদের নিরপেক্ষ হওয়া উচিত। এটাকে অন্য কোনও গতানুগতিক মামলার চোখে দেখবেন না। যদি এক্ষেত্রে কোনও ভুল হয়ে থাকে, তাহলে তা স্বীকার করুন। বলুন, হ্যাঁ আমাদের তরফে ভুল হয়েছে এবং আমরা এই বিষয়ে কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছি। তাহলে অন্তত আপনাদের প্রতি মানুষের বিশ্বাস তৈরি হবে।” এই মামলায় মঙ্গলবার পরীক্ষক সংস্থা এনটিএ নোটিশ জারি করা হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের তরফে। এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে আগামী ৮ জুলাই।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ফলাফল সন্দেহজনক! EVM ও ভিভিপ্যাট মেলানোর দাবিতে কমিশনে মহারাষ্ট্রের বিজেপি প্রার্থী]

অন্যদিকে, নিট পরীক্ষায় যে ১,৫৬৩ জন পরীক্ষার্থী ‘ভুল’ প্রশ্নের জন্য গ্রেস মার্কস পেয়েছিলেন প্রবল চাপের মুখে তাঁদের সেই বাড়তি গ্রেস মার্কস বাতিল করা হয়েছে। আগামী ২৩ জুন সেই সব পড়ুয়াদের নতুন করে পরীক্ষা নেওয়া হবে। পাশাপাশি নিটের কাউন্সেলিং আগামী ৬ জুলাই থেকে শুরু হবে বলে জানা যাচ্ছে। পড়ুয়ারা শীর্ষ আদালতে কাউন্সেলিং বন্ধ করার আবেদন জানালেও নিটের কাউন্সেলিংয়ে কোনও নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি আদালত।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ