BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিলের পথেই হাঁটুক CBSE, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 17, 2020 1:17 pm|    Updated: June 17, 2020 1:25 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এবার CBSE’র দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করার কথাই ভাবুক বোর্ড। অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের (internal assessment) উপর ভিত্তি করেই নম্বর দেওয়া হোক ছাত্রছাত্রীদের। বুধবার CBSE-কে এই সিদ্ধান্তই বিবেচনা করে দেখার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট।

এদিন শীর্ষ আদালতের তিন বিচারপতির বেঞ্চ CBSE’র দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিলের পক্ষেই সওয়াল করেন। বিচারক এএম খানউইলকরের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ CBSE-কে জানায়, এই পরিস্থিতির মধ্যে পড়ুয়াদের পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। সেই কারণে  অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের ভিত্তিতেই যেন এবারের ফলাফল বিচার করা হয়। আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে বোর্ডকে নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানানোর নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

[আরও পড়ুন: ‘এনাফ ইজ এনাফ, প্রধানমন্ত্রী এখনও চুপ কেন?’ লাদাখ ইস্যুতে মোদিকে প্রশ্ন রাহুলের]

উল্লেখ্য, CBSE’র দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অভিভাবকরা। আগামী মাসেই দেশজুড়ে প্রায় ১৫ হাজার পরীক্ষাকেন্দ্রে দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা হওয়ার কথা ঘোষণা করেছিল CBSE। দেশজুড়ে লক্ষাধিক পড়ুয়া পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ক্রমবর্ধমান করোনার দাপটের মধ্যে পড়ুয়াদের কোনওভাবেই স্কুলে পাঠাতে রাজি হননি অভিভাবকরা। সে কারণেই দিল্লির চার অভিভাবক কেন্দ্রীয় বোর্ডের এই পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন।

সূত্রের খবর, গত ৯ জুন সর্বোচ্চ আদালতে একটি পিটিশন দাখিল করেছেন দিল্লির চার অভিভাবক। তাঁরা মনে করছেন, দেশে যেভাবে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে তাতে এর মধ্যে পরীক্ষা নেওয়াটা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হবে। পরীক্ষা হলে সামাজিক দূরত্ব এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাটা একপ্রকার অসম্ভব। তাছাড়া, অধিকাংশ করোনা রোগীই উপসর্গহীন। তাঁদের থেকে অজান্তে লক্ষ লক্ষ মানুষ সংক্রমিত হতে পারেন। দেশজুড়ে লক্ষ লক্ষ পড়ুয়ার জীবন এভাবে ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দেওয়া ঠিক হবে না। সেই প্রেক্ষিতেই আজ CBSE-কে সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার নির্দেশ দেওয়া হল।

[আরও পড়ুন: ‘এনাফ ইজ এনাফ, প্রধানমন্ত্রী এখনও চুপ কেন?’ লাদাখ ইস্যুতে মোদিকে প্রশ্ন রাহুলের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement