BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘স্বদেশীর প্রচার মানেই সমস্ত বিদেশি পণ্য বয়কট নয়’, বলছেন মোহন ভাগবত

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: August 13, 2020 10:53 am|    Updated: August 13, 2020 11:02 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আত্মনির্ভর ভারত তৈরির ডাক দেওয়ার পর থেকেই জল্পনা তৈরি হয়েছিল। প্রশ্ন উঠেছিল, এবার কী তাহলে সংঘ পরিবারের দীর্ঘদিনের দাবি মেনে স্বদেশী পণ্য ব্যবহারে দেশবাসীকে অভ্যস্ত করতে চাইছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। বয়কট করতে চাইছে সমস্ত বিদেশি দ্রব্য? বুধবার একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সেই জল্পনা পুরো ভিত্তিহীন বলে জানিয়ে দিলেন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের সরসংঘচালক মোহন ভাগবত (Mohan Bhagwat)।

একটি বই উদ্বোধনের জন্য আয়োজিত ভারচুয়াল অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন আরএসএস (RSS) প্রধান। সেখানে বক্তব্য রাখতে তিনি বলেন, ‘স্বদেশী মানে এই নয় যে সমস্ত বিদেশি পণ্য বয়কট করতে হবে। আমাদের জন্য যা উপযুক্ত ভারত তাই আমদানি করবে। তবে সেটা আমাদের শর্ত অনুযায়ীই হবে। স্বদেশীর মূল অর্থ হল, দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি পণ্যসামগ্রীকে অগ্রাধিকার দেওয়া। কিন্তু, অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় দেশে সেই পণ্য উৎপাদিত হলেও আমরা তার দিকে নজর দিই না, বিদেশি জিনিস কিনি। এই মানসিকতায় বদল আনতে হবে। তা বলেই যে জিনিস আমাদের দেশে তৈরি হয় না সেই সমস্ত জিনিস বা প্রযুক্তি বিদেশ থেকেই আমদানি করতে হবে। স্বাধীনতার পরেও আমাদের দেশের অর্থনীতিকে পশ্চিমের দেশগুলির প্রভাব রয়ে গিয়েছিল। একে আটকানোর জন্য কোনও অর্থনৈতিক নীতি রূপায়ণ করিনি আমরা। এর ফলে দেশে তৈরি হওয়া পণ্যের ব্যবসা ও প্রযুক্তি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু, এখন আমরা নীতি বদলে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। দেশের অর্থনীতির উন্নতির জন্য প্রধানমন্ত্রী যে আত্মনির্ভর ভারত তৈরি আহ্বান জানিয়েছেন তা একদম সঠিক পদক্ষেপ।’

[আরও পড়ুন: রাজস্থানের পর এবার পাঞ্জাব! ফের নবীন-প্রবীণ দ্বন্দ্ব কংগ্রেসে, বড়সড় ভাঙনের আশঙ্কা ]

করোনার ফলে একই অর্থনৈতিক মডেল সব দেশের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয় এটা প্রমাণ হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন সংঘ প্রধান। বলেন, একই ধরনের অর্থনৈতিক মডেল সব দেশের জন্য গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। করোনা পরবর্তী সময়ে অর্থনীতিকে যদি সঠিকভাবে চালিত করতে হয় তাহলে সব দেশকেই গোটা বিশ্বকে একটা পরিবার বলে ভাবতে হবে। তারা যদি একে বাজার ভেবে নেয় তাহলে অর্থনৈতিক সমস্যা আরও বাড়বে।’

[আরও পড়ুন: রেকর্ড ভেঙে একদিনে করোনার কবলে ৬৭ হাজার, দেশে মোট আক্রান্ত ২৪ লক্ষ ছুঁইছুঁই]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement