BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৫ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

হিন্দুত্ববাদীদের রোষে তানিষ্ক! বিজ্ঞাপন সরানোর পরেও শোরুমে হামলা, আতঙ্কিত কর্মীরা

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 14, 2020 1:46 pm|    Updated: October 14, 2020 1:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তানিষ্কের (Tanishq) বিজ্ঞাপন নিয়ে বিতর্কের মাঝে নয়া অশান্তি। গুজরাটে গান্ধীধামের শোরুমে বেশ কয়েকজন হানা দেয় বলেই অভিযোগ। ওই বিজ্ঞাপন হিন্দুত্ববাদীগের আবেগে ধাক্কা দিয়েছে বলেই দাবি। সূত্রের খবর, তাই শোরুমের ম্যানেজারকে বিজ্ঞাপনের জন্য লিখিত ক্ষমা প্রার্থনাও করতে হয়।

মুসলমান পরিবারের ছেলের সঙ্গে হিন্দু পরিবারের মেয়ের বিয়ে। আর সেই মুসলিম পরিবারের পুত্রবধূর সাধভক্ষণ নিয়ে বিজ্ঞাপন তৈরি করে বিপাকে তানিষ্ক। ওই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে লাভ জেহাদের মতো ইস্যুকেই নাকি কার্যত উসকানি দেওয়া হয়েছে বলেই উঠেছে অভিযোগ। রীতিমতো ক্ষোভপ্রকাশ করতে থাকে নেটিজেনদের একাংশ। কেউ লেখেন, ‘‌‘‌সবসময় বিজ্ঞাপনে একজন গৃহবধূকে হিন্দুই হতে হবে, মুসলিম হন না কেন?‌’‌’ কেউ লেখেন, ‘‌‘‌এমন একটি বিজ্ঞাপন তৈরি করুন যেখানে মুসলিম গৃহবধূ তাঁর হিন্দু শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে ইদ পালন করছে।’‌’‌‌ এমনকী বিষয়টি নিয়ে টুইট করেন কঙ্গনাও। ‌সরাসরি না বললেও তিনি লেখেন,‘‌‘বিজ্ঞাপনটিতে হিন্দু মেয়েটিকে যেভাবে ভীত-সন্ত্রস্থ দেখিয়েছে, তা একদম ঠিক নয়।’‌’‌

[আরও পড়ুন: ধপাস! যোগাসন শেখাতে গিয়ে হাতির পিঠ থেকে পড়েই গেলেন রামদেব! ভাইরাল ভিডিও]

এদিকে, অনেকেই আবার ভারতীয় সংস্কৃতির উদাহরণ টেনে বিজ্ঞাপনটির প্রশংসা করেছেন। কেউ আবার যাঁরা ট্রোল করছেন তাঁদেরই পালটা সমালোচনা করেছেন। কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুরও (Shashi Tharoor ) বিজ্ঞাপনটির পক্ষে টুইট করেন।

তবে চাপের মুখে বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে দিতে বাধ্য হয় ওই গয়না প্রস্তুতকারক সংস্থা। তবে তারপরেও নয়া অশান্তি। গুজরাটের গান্ধীধামের শোরুমে বহু মানুষের হানার ঘটনায় আতঙ্কে তানিষ্কের কর্মীরা।

[আরও পড়ুন: রোগ সারানোর নামে কিশোরীকে ধর্ষণ, ভণ্ড সাধুকে বেধড়ক মারধর উত্তেজিত জনতার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement