Advertisement
Advertisement
PM CARES Fund

PM CARES-এর নতুন ট্রাস্টি শিল্পপতি রতন টাটা, জানাল মোদির দপ্তর

উপদেষ্টা পর্ষদের সদস্য করা হয়েছে ইনফোসিস চেয়ারম্যান সুধামূর্তিকে।

Tata Sons Ratan Tata among newly appointed trustees of PM CARES Fund | Sangbad Pratidin
Published by: Kishore Ghosh
  • Posted:September 21, 2022 4:50 pm
  • Updated:September 21, 2022 6:22 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টাটা সন্সের প্রাক্তন চেয়ারম্যান রতন টাটাকে (Ratan Tata) পিএম কেয়ারস ফান্ডের (PM Cares Fund) অন্যতম ট্রাস্টি হিসাবে নিযুক্ত করা হল। মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) সভাপতিত্বে একটি বৈঠক হয়, সেখানে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন খোদ রতন টাটা। এক বিবৃতিতে পিএম কেয়ার ফান্ডের নয়া ট্রাস্টিদের নাম ঘোষণা করেছে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর (PMO)।

উল্লেখ্য, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ (Nirmala Sitharaman) ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) পিএম কেয়ারস ফান্ডের অন্যতম ট্রাস্টি। নতুন ট্রাস্টিদের নাম ঘোষিত হল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে বোর্ড অফ ট্রাস্টিদের বৈঠকে। এদিন সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি কেটি থমাস, প্রাক্তন ডেপুটি স্পিকার কারিয়া মুণ্ডা এবং রতন টাটার নাম ঘোষণা করা হয় পিএম কেয়ার ফান্ডের নতুন ট্রাস্টি হিসেবে। বৈঠকে পিএম কেয়ার ফান্ডের বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে সংবিধান বেঞ্চের সব শুনানির সরাসরি সম্প্রচার, বড় সিদ্ধান্ত সুপ্রিম কোর্টের]

এছাড়াও ট্রাস্ট পিএম কেয়ারস ফান্ডের উপদেষ্টা বোর্ড গঠনের জন্য যে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মনোনীত করেছে, তাঁরা হলেন দেশের প্রাক্তন সিএজি রাজীব মেহরিষি, প্রাক্তন ইনফোসিস চেয়ারম্যান সুধামূর্তি এবং ‘টিচ ফর ইন্ডিয়া’র সহ-প্রতিষ্ঠাতা আনন্দ শাহ।

Advertisement

[আরও পড়ুন: কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচন নিয়ে নয়া জটিলতা, প্রার্থী হলেও মুখ্যমন্ত্রিত্ব ছাড়তে নারাজ গেহলট]

এদিনের বৈঠকে মোদি মন্তব্য করেন, নতুন ট্রাস্টি এবং উপদেষ্টাদের অংশগ্রহণ পিএম কেয়ারস ফান্ডের কার্যকারিতাকে আরও বিস্তৃত করবে। এই ফান্ডে দান করার জন্য দেশের জনগণের প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । এছাড়াও নতুন ট্রাস্টিদের স্বাগত জানান তিনি। 

২০২০ সালে দেশে কোভিডে নানা ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের সাহায্যের জন্য এই তহবিল গঠন করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ‘পিএম কেয়ার্স ফান্ড’-এর সভাপতি। তহবিলে মোটা অঙ্কের অনুদান দিলে আয়কর ছাড় দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় সরকার। পিএম কেয়ার ফান্ড নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি। ফান্ডের অর্থ নয়ছয় হয়েছে বলে দাবি বিরোধীদের। যদিও এদিন প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় দাবি করে, সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে তহবিলের মাধ্যমে ৪৩৪৫ জন কিশোরকে সাহায্য করা হচ্ছে।  

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ