BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনায় আক্রান্ত থানের পুলিশ আধিকারিক, কোয়ারেন্টাইনে আরও ৩৫

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 12, 2020 1:58 pm|    Updated: April 12, 2020 1:58 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হচ্ছে। লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। দেশে সর্বাধিক মৃত্যু দেখেছে আরব সাগরের পাশের এই রাজ্য। চিন্তা আরও বাড়াল পুলিশ কর্মীদের মধ্যেও সংক্রমণ ছড়ানোর খবর। সূত্রের খবর, থানে পুলিশের এক বর্ষীয়ান পুলিশ ইন্সপেক্টর করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরপরই তাঁর সংস্পর্শে আসায় ৩৫ জন পুলিশ কর্মীকে তড়িঘড়ি কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। আর কারা কারা তাঁর সংস্পর্শে এসেছিলেন, তা খোঁজ নিয়ে দেখা হচ্ছে। আক্রান্ত পুলিশ আধিকারিকের পরিবারের সদস্যদের রক্তরসের নমুনা পরীক্ষা করতে পাঠানো হবে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য বলছে, মহারাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮৭ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। যার জেরে রাজ্যে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭৬১ জন। সংক্রমণ সামাল দিতে মহারাষ্ট্রেও ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত ২১ দিন ধরে লকডাউন মানার পরও অবশ্য সংক্রমণ কমানো যায়নি। এমন কঠিন পরিস্থিতিতেও স্বাস্থ্যকর্মী. পুলিশ কর্মী ও সাফাইকর্মীরা উদয়অস্ত পরিশ্রম করে চলেছেন। এবার তাঁরাও আক্রান্ত হওয়ায় সংকট আরও বেড়েছে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

[আরও পড়ুন : লকডাউন কার্যকর করতে গিয়ে ধুন্ধুমার, পুলিশের হাত কেটে পালাল দুষ্কৃতীরা]

এদিকে দক্ষিণ মুম্বইয়ের তাজ হোটেলের ছয় কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ প্রসঙ্গে শনিবার তাজ হোটেলের করোনা আক্রান্ত কর্মীদের সম্পর্কে মুখ খোলে ইন্ডিয়ান হোটেলস কোম্পানি। প্রসঙ্গত, টাটা গোষ্ঠীর সব হোটেলগুলির সরকারিভাবে মালিকানা রয়েছে এই ইন্ডিয়ান হোটেলস কোম্পানি লিমিটেড (Indian Hotels Company Limited)-এর হাতেই। তাদের পক্ষ থেকেই একটি প্রেস বিবৃতি দিয়ে জানানো হয় যে, “যে কর্মীদের উপসর্গ দেখা গিয়েছে এবং রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে, অতি তৎপরতার সঙ্গে তাঁদের হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। উপরন্তু এই কদিনে ওই কর্মীদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদেরও ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার যথাযথ গাইডলাইনস এবং মুম্বই প্রশাসনের নিয়ম মেনেই।”

[আরও পড়ুন : করোনা আবহে ২০০০ টাকা করে সাহায্য পেয়েছেন প্রায় সাত কোটি কৃষক! দাবি কেন্দ্রের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement