BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ছ’দিনে একটাও গুলি চলেনি, কাশ্মীর শান্ত দাবি পুলিশের

Published by: Tanujit Das |    Posted: August 11, 2019 2:15 pm|    Updated: August 11, 2019 2:15 pm

The present situation of J&K is very stable and state of peace

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিক্ষোভের আঁচ কমেছে৷ উত্তপ্ত জম্মু-কাশ্মীরের পরিস্থিতি এখন শান্তিপূর্ণ। গত ছ’দিনে কোনও হিংসার ঘটনা ঘটেনি। চলেনি একটা গুলিও৷ উপত্যকার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে যখন গোটা বিশ্বে জলঘোলা হচ্ছে, তখন এমনই বিবৃতি প্রকাশ করল জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ।

[ আরও পড়ুন: তিন তালাক, ৩৭০ ধারা অবলুপ্তির পর ধর্মান্তকরণ বিরোধী বিল! প্রস্তুতি শুরু মোদি সরকারের]

পাশাপাশি, সাধারণ মানুষকে বলা হয়েছে, ‘ভুয়ো’ এবং বিভ্রান্তিমূলক খবরে বিশ্বাস না করতে৷ শনিবার সাংবাদিকদের কাশ্মীর পুলিশের ডিজি দিলবাগ সিংহ জানান, “গত ছ’দিনে উপত্যকার কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। কয়েকটা পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। তবে তা বড় আকার নেওয়ার আগেই সামাল দেওয়া হয়েছে।’’ এমনকী, কাশ্মীরের সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সে যে বিতর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে এদিন তারও প্রতিবাদ করেন কাশ্মীর পুলিশের আইজি এসপি পানি৷ তিনি সাফ জানান, ‘‘সাধারণ মানুষের বিক্ষোভ এবং তাতে পুলিশের গুলিচালনার ভ্রান্ত খবর প্রকাশ করছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম৷ তা সম্পূর্ণ ভুল৷ এমন কোনও ঘটনাই ঘটেনি। গত এক সপ্তাহ ধরেই উপত্যকা শান্তিপূর্ণ রয়েছে।”

[ আরও পড়ুন: ‘কথা বলা কম্পিউটার’ তৈরি সম্ভব হবে সংস্কৃতের দৌলতেই, মন্তব্য মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীর ]

পাশাপাশি, সাধারণ মানুষের উদ্দেশেও সতর্কতা জারি করেছে কাশ্মীর পুলিশ৷ প্রশাসনের তরফে বলা হয়েছে, ‘‘মিথ্যা ও বিভ্রান্তিমূলক খবরের ফাঁদে পা পড়বেন না। গত ছ’দিনে কাশ্মীরে কোনও গুলি চালেনি। গত ছ’দিনে একটি বুলেটও ছোড়েনি পুলিশ।’’ একই ভাবে, কাশ্মীর ইস্যুতে বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা হলে, তা বরদাস্ত করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে কেন্দ্রও৷ এই মর্মে সমস্ত সংবাদমাধ্যমকে সতর্ক করেছে নয়াদিল্লি৷ স্পর্শকাতর বিষয়ে ভুল তথ্য পরিবেশিত হলে সংশ্লিষ্ট সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে বিবৃতি জারি করেছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে