১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

দিল্লি থেকে ঢিলছোঁড়া দূরত্বে ধর্মীয় শোভাযাত্রায় ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান! গ্রেপ্তার ৩

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 21, 2021 9:08 am|    Updated: October 21, 2021 7:23 pm

Three arrested for raising Pakistan Zindabad slogan during religious procession in Noida | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের মাটিতে দাঁড়িয়ে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ (Pakistan Zindabad) স্লোগান! তাও আবার খাস রাজধানী দিল্লি থেকে ঢিলছোঁড়া দূরত্বে অবস্থিত নয়ডায়। বিশ্বাস করা কঠিন হলেও, এটাই সত্যি। আর এই ঘটনার জেরে এখনও পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁদের মধ্যে সাম্প্রদায়িক অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা এবং হিংসায় উসকানি দেওয়ার মামলা রুজু হয়েছে।

Three arrested for raising Pakistan Zindabad slogan during religious procession in Noida

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যাতে দেখা যাচ্ছে নয়ডার (Noida) সেক্টর ২০ থানা এলাকায় এক ধর্মীয় শোভাযাত্রায় পাকিস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান দিচ্ছে জনাকয়েক যুবক। আসলে, নয়ডার সেক্টর এইট এলাকায় গতকাল রাতে একটি মসজিদের কাছে ইদ-এ-মিলাদ-উন-নবি উপলক্ষে একটি শোভাযাত্রার আয়োজন করে স্থানীয়রা। জেলা প্রশাসনের কাছে সেই শোভাযাত্রার অনুমতিও নেওয়া হয়েছিল। অনুমতি নেওয়া হয়েছিল স্থানীয় সেক্টর ২০ থানারও।

[আরও পড়ুন: ভোটের মুখে উত্তরপ্রদেশে ধাক্কা বিজেপির, গেরুয়া শিবির ছেড়ে অখিলেশের হাত ধরল রাজভরদের দল]

পুলিশ সূত্রের খবর, ওই শোভাযাত্রাতেই কয়েকজন দুষ্কৃতী পাকিস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান দেয়। স্থানীয় এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, ওই শোভাযাত্রায় আয়োজকরা ‘হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ’ (Hindustan Zindabad) স্লোগানই দিচ্ছিলেন। ভারতের জাতীয় পতাকাও সেখানে ছিল। কিন্তু তার মধ্যে থেকেই দুষ্কৃতীরা পাকিস্তানের জয়ধ্বনি শুরু করে। নিমেষে সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। ভাইরাল ভিডিও দেখেই স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে পুলিশ। ভিডিওটি ভাল করে খতিয়ে দেখার পরই ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই তিনজন হল মহম্মদ জাফর, সমীর আলি এবং আলি রাজা। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে ফের আটক প্রিয়াঙ্কা, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি কংগ্রেস কর্মীদের, তুঙ্গে রাজনৈতিক তরজা]

ওই শোভাযাত্রাটি যে মসজিদের কাছে থেকে শুরু হয়েছিল, সেই মন্দির কর্তৃপক্ষ অবশ্য এই ঘটনার দায় নিতে অস্বীকার করেছে। মন্দির কর্তৃপক্ষের দাবি, ওই শোভাযাত্রার আয়োজন তারা করেননি। স্থানীয়রা করেছিল। এবং ওই দুষ্কৃতীদের সঙ্গে মসজিদের কোনও সম্পর্ক নেই। পুলিশ সূত্রেও বলা হয়েছে, ওই দুষ্কৃতীদের সঙ্গে শোভাযাত্রার আয়োজক বা মসজিদ কর্তৃপক্ষের কোনও সম্পর্ক নেই। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে