৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

পুলওয়ামায় গুলির লড়াই, এনকাউন্টারে খতম হিজবুল-জইশ তিন জঙ্গি

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 12, 2020 6:49 pm|    Updated: January 12, 2020 6:56 pm

Three terrorist shot dead during an encounter at Pulwama.

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্ত্রাসে মদত জোগানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন রাষ্ট্রপতি পুরস্কারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্তা। পুলিশের জালে আরও দুই জঙ্গি। এই ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই যৌথবাহিনীর এনকাউন্টারে খতম আরও তিন জঙ্গি। পুলওয়ামায় খতম হওয়া জঙ্গিদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক-সহ অত্যাধুনিক আগ্নেয়ান্ত্র। যা দেখে মনে করা হচ্ছে বড়সড় নাশকতার ছক কষেছিল ওই সন্ত্রাসবাদিরা। জঙ্গি দমনে নেমে পরপর জোড়া সাফল্যে স্বভাবতই চাঙ্গা পুলিশ-সহ নিরাপত্তাবাহিনী। এদিকে নিয়ন্ত্রণরেখায় ফের সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান। চলছে গুলির লড়াই। তবে কোনও হতাহতের খবর নেই।

[আরও পড়ুন : মধ্যপ্রদেশে উলটপুরাণ! CAA ও NRC’র পক্ষে সওয়াল কংগ্রেস বিধায়কের]

দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাম এলাকা থেকে দুই জঙ্গিকে পাকড়াও করা হয়। জানা যায় একজন হিজবুল মুজাহিদিন ও অপরজন লস্করের সদস্য।আপাতত তাদের জেরা করে হামলার পরিকল্পনা জানা চেষ্টা করছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। এরপর রবিবার বেলা গড়াতেই সেনা-জঙ্গি এনকাউন্টারে খতম হয় হিজবুল, জইশের সদস্যরা। গোপন সূত্রে পুলওয়ামার গুলশানপোরা এলাকায় সন্ত্রাসবাদিরা আত্মগোপনের খবর পেয়ে চিরুনী তল্লাশি অভিযান শুরু করে যৌথবাহিনী। এরপরই নিরাপত্তারক্ষীদের লক্ষ্য করে গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। পালটা গুলি চালায় সেনাও। দুপক্ষের মধ্যে তীব্র গুলিযুদ্ধ চলতে থাকে। যৌথবাহিনীর গুলিতে খতম হয় তিন জঙ্গি। পরে জানা যায়, মৃত তিনজনের মধ্যে দুজন হিজবুলের সদস্য। নাম উমর ফইয়াজ লোন ও আদিল বশির মীর। অন্য আরেক জনের নাম ফৌজান হামিদ ভাট। সে জইশ-ই-মহম্মদের সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে প্রচুর অস্ত্রশস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে। কাশ্মীর পুলিশ ঘটনাস্থলের ছবি নিজেদের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে পোস্ট করেছেন।

[আরও পড়ুন : রক্ষকই ভক্ষক, কাশ্মীরে জঙ্গিদের সঙ্গে ধৃত রাষ্ট্রপতি পুরস্কারপ্রাপ্ত DSP]

এদিকে শনিবার রাত থেকে উত্তপ্ত্ পুঞ্চের নিয়ন্ত্রণরেখা এলাকা। বিনা প্ররোচনায় পাকিস্তান সেনা গুলি চালিয়েছে বলে অভিযোগ। পাল্টা জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনারা। প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, রাত সাড়ে নটা নাগাদ পুঞ্চের দেওয়ার সেক্টর উত্তপ্ত হয়। প্রথমে গুলি পরে সীমান্তের ওপার থেকে মর্টার হামলা চালানো হয়। তবে হতাহতের কোনও খবর নেই।  

    

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে