BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘জামা মসজিদ পাকিস্তানে নাকি?’ আজাদের গ্রেপ্তারিতে দিল্লি পুলিশকে ভর্ৎসনা আদালতের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: January 14, 2020 2:02 pm|    Updated: January 14, 2020 2:02 pm

Tis Hazari court slammed Delhi Police Chandrashekhar Azad's bail hearing

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: CAA বিরোধী আন্দোলনের জন্য ধৃত ভীম আর্মির প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদের জামিন মামলায় দিল্লি পুলিশকে তীব্র ভর্ৎসনা আদালতের। মঙ্গলবার তিস হাজারি কোর্টে শুনানির সময় বিচারকের মন্তব্য, ‘জামা মসজিদ পাকিস্তানে নাকি? বিক্ষোভ দেখালে অসুবিধাটা কী? প্রতিবাদ জানানোর প্রত্যেকের সাংবিধানিক অধিকার রয়েছে।’

উল্লেখ্য, ডিসেম্বর মাসে দিল্লির দরিয়াগঞ্জে CAA বিরোধী বিক্ষোভ হিংসাত্মক রূপ নেয়। তখন দিল্লির জামা মসজিদে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদ বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন দলিতদের ‘রাবণ’ হিসাবে পরিচিত চন্দ্রশেখর আজাদ। হাতে বিআর আম্বেদকরের ছবি নিয়ে প্রতিবাদে শামিল হন তিনি। সেইসময় দিল্লি পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। ২১ ডিসেম্বর তাঁকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে পাঠায় আদালত। এদিন বিচারক কামিনী লাউ সরকারি কৌঁসুলিকে প্রশ্ন করেন, ধরনা বা অবস্থান বিক্ষোভে সমস্যা কী? প্রত্যেকের প্রতিবাদ দেখানোর অধিকার আছে। সংবিধান এই অধিকার দিয়েছে। এরপর ভর্ৎসনার সুরে তিনি বলেন, ‘দিল্লি পুলিশ এমন করছে যেন জামা মসজিদ পাকিস্তানে রয়েছে।’

[আরও পড়ুন: প্রথম রাজ্য হিসেবে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে কেরল]

তখন সরকারি আইনজীবী জানান, বিক্ষোভ কর্মসূচির জন্য কোনও অনুমতি ছিল না। তার উত্তরে ফের বিচারকের পালটা মন্তব্য, ‘কীসের অনুমতি? সুপ্রিম কোর্ট আগেই জানিয়েছে, বারংবার ১৪৪ ধারা জারি করা অপরাধ। এমন অনেক মামলা আমি দেখেছি যেখানে পার্লামেন্টের বাইরে বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে। তাদের কেউ কেউ প্রবীণ রাজনীতিবিদ, মুখ্যমন্ত্রী। ভাল করে সংবিধান পুরোটা পড়ুন।’ বকা খেয়ে কৌঁসুলির দাবি, ড্রোন ফুটেজে দেখা গিয়েছে বিক্ষোভকারীদের উসকানিমূলক ভাষণ দিচ্ছিলেন

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে