BREAKING NEWS

৯ শ্রাবণ  ১৪২৮  সোমবার ২৬ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Pegasus নজরদারি চালিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফোনেও! চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তৃণমূলের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: July 21, 2021 9:50 am|    Updated: July 21, 2021 11:47 am

TMC alleged that Mamata Banerjee's phone was also tapped by Pegasus | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, বিরোধী নেতা থেকে শুরু করে সাংবাদিকদের ফোন হ্যাক করার অভিযোগ উঠেছে ইজরায়েলি স্পাইওয়্যার পেগাসাসের (Pegasus) বিরুদ্ধে। অভিযোগের আঙুল উঠছে কেন্দ্র তথা শাসক বিজেপির (BJP) বিরুদ্ধেও। তোলপাড় গোটা দেশ। তারই মধ্যে মঙ্গলবার শুরু হয়েছে নয়া আলোড়ন। ‘দ্য ওয়ার’-এর দাবি, কর্নাটকের পূর্বতন কংগ্রেস-জনতা দল (সেকুলার) মন্ত্রিসভার বহু কর্তাব্যক্তির ফোননম্বরে আড়ি পাতা হয়েছিল। আর সেই সঙ্গে তৃণমূলের দাবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ফোন ট্যাপের চেষ্টাও করা হয়েছে।

তাঁর ফোনও বহুদিন ধরে ট্যাপ করা হচ্ছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই দলের নেতাদের তাঁর সঙ্গে কথা বলার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকারও নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার তৃণমূল কংগ্রেসের লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ থেকে এমনটাই জানা গিয়েছে। এমনকী, বাংলায় বিধানসভা নির্বাচনের আগে বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মুখ্যমন্ত্রী যে ইজরায়েল থেকে ফোনের কথা শোনার মেশিন আনা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছিলেন, সেকথাও এদিন স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন দলের রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়ান।

[আরও পড়ুন: ‘বাঁচার অধিকার সবার উপরে’, ইদে লকডাউনে ছাড় নিয়ে কেরল সরকারকে ভর্ৎসনা সুপ্রিম কোর্টের]

মুখ্যমন্ত্রীর ফোন ট্যাপিং সংক্রান্ত এক প্রশ্নের উত্তরে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “আমার সঙ্গে কাল কথা হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। উনি বলেছেন, ওঁর ফোনও বহুদিন থেকেই ট্যাপ করা হচ্ছে। সেজন্যই ওঁর সঙ্গে কথাবার্তা বলার ক্ষেত্রে যথেষ্ট সাবধানতা অবলম্বন করার জন্য আমাদের জানিয়েছেন এবং আমরা সেভাবেই সব মে‌নে চল‌ছি।”

এদিন সকালে অধিবেশন শুরুর আগে পেগাসাস নিয়ে সংসদ চত্বরে গান্ধীমূর্তির পাদদেশে ধরনা-বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন তৃণমূলের লোকসভা ও রাজ্যসভার সাংসদরা। দলের পক্ষ থেকে সংসদের উভয় কক্ষেই নোটিস দিয়ে এ বিষয়ে আলোচনার দাবিও জানানো হয়। সংসদের উভয় কক্ষেই তৃণমূল সাংসদরা পেগাসাস নিয়ে সরব হন।

এদিকে মঙ্গলবার ‘দ্য ওয়ার’ জানিয়েছে, কর্নাটকে (Karnataka) সরকার ফেলার আগের কয়েকটি দিন তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীর ব্যক্তিগত সচিব সতীশের দু’টি নম্বর, উপমুখ্যমন্ত্রী জি পরমেশ্বরের নম্বর এবং রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়ার ব্যক্তিগত সচিব ভেঙ্কটেশের ফোনে নজরদারি চালায় পেগাসাস। সিদ্দারামাইয়ার ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গিয়েছে, তাঁর নিজের কোনও মোবাইল ফোন নেই। অর্থাৎ, তাঁর ব্যক্তিগত সচিবের ফোনে নজরদারি এক্ষেত্রে তাৎপর্যপূর্ণ। কুমারস্বামীর বাবা তথা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবগৌড়ার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এক পুলিশ কর্মীর নম্বরও ছিল তালিকায়।

পেগাসাস তৈরি করে ইজরায়েলের এনএসও গ্রুপ। তাদের একজন ভারতীয় গ্রাহকের ‘আগ্রহের’ তালিকা পর্যালোচনা করে এই নম্বরগুলি পাওয়া গিয়েছে বলে জানিয়েছে ‘দ্য ওয়ার’। ঘটনাচক্রে সে সময়েই পুরনো নম্বর ছেড়ে নতুন নম্বর ব্যবহার করতে শুরু করেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। ফরাসি সংবাদ মাধ্যম ‘ফরবিডেন স্টোরিজ’-সহ আন্তর্জাতিক মিডিয়া পেগাসাসের বিরুদ্ধে যে তদন্ত চালিয়েছে, তা থেকেই এই সমস্ত তথ্য মিলেছে।

[আরও পড়ুন: ‘সত্যিটা হজম করতে পারছে না Congress’, BJP সাংসদদের বৈঠকে বেনজির তোপ Modi’র]

এসব নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে হইচই চলছে। প্রসঙ্গ টেনে বিক্ষোভ চলছে সংসদেও। পেগাসাস নিয়ে কেন্দ্রের তরফে সংসদে তাদের ৯ দফা প্রশ্নের জবাব না দেওয়া পর্যন্ত তারা যে বাদল অধিবেশন চলতে দেবে না, তা মঙ্গলবার দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক করে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। পেগাসাস কাণ্ডে ফোন ট্যাপিং-এর যে নামের তালিকা সামনে এসেছে, তাতে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম রয়েছে বলে সোমবার একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থার তরফে দাবি করা হয়েছিল। এবার মুখ্যমন্ত্রীর প্রসঙ্গ টেনে এ বিষয়ে তৃণমূল যে আগামী দিনে আক্রমণের ঝাঁজ আরও বাড়াতে চলেছে, সেটাই বুঝিয়ে দিয়েছে।

পেগাসাস ইস্যুতে আগে থেকেই সরব হয়েছিল কংগ্রেস। দলের নেতা রাহুল গান্ধীর নাম ফোন ট্যাপিং-এর তালিকায় আসার পর এ নিয়ে সংসদে আক্রমণের ঝাঁজ বাড়িয়েছে তারাও। পেগাসাস নিয়ে বিরোধীরা যে একজোট হয়ে কেন্দ্রের উপর চাপ বৃদ্ধি এবং সরকারপক্ষকে কোণঠাসা করার চেষ্টা করবে, তা নিয়ে এদিন সকালে রাজ্যসভার বিরোধী দলের নেতাদের বৈঠকেও আলোচনা ও পরে সম্মিলিত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement