২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজনীতির উর্ধ্বে গিয়ে সমস্যা সমাধান করতে হবে। এই মন্ত্রেই মঙ্গলবার সংসদে অভিনব কাজ করলেন তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার। দিল্লি-সহ উত্তর ভারতে দূষণের বাড়বাড়ন্ত রোধে সবপক্ষকে রাজনীতির উর্ধ্বে গিয়ে সমাধানের পথ খোঁজার বার্তা দিলেন বারাসতের সাংসদ। সেই জন্য মুখে দূষণ নিরোধক মাস্ক পরে আসেন তিনি।

এদিন লোকসভাতেও জিরো আওয়ারে দূষণ নিয়ে সরব হওয়ার সময় মাস্ক পরেছিলেন কাকলি। তিনি এদিন সংবাদ সংস্থা এএনআইকে জানান, ‘দেশের রাজধানীতে লাগামছাড়া দূষণের বিষয়ে আমাদের সকলের ভাবার সময় হয়েছে। আমাদের প্রত্যেকের উচিত দলমত নির্বিশেষে রাজনীতির উর্ধ্বে গিয়ে এই সমস্যার সমাধান বের করা। জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে লড়তে আমাদের পথ বের করা উচিত।’

এদিন আগে রাজ্যসভায় বিজেপি এবং কংগ্রেস সাংসদরা নোটিস দেন জিরো আওয়ারে দূষণ নিয়ে আলোচনার জন্য। বিজেপি সাংসদ আরকে সিনহা, বিজয় গোয়েল, জিভিএল নরসিমহা রাও এবং নরেন্দ্র যাদব ও অন্যদিকে কংগ্রেস সাংসদ কেটিএস তুলসী এই বিষয়ে রাজ্যসভায় নোটিস দেন। লোকসভায় কংগ্রেস সাংসদ মনীশ তিওয়ারি ও বিজেডি সাংসদ পিনাকী মিশ্র বায়ুদূষণ ও জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে বক্তব্য রাখেন। সেইসঙ্গে কাকলিদেবীও মুখে মাস্ক পরে সংসদের প্রত্যেকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

[আরও পড়ুন: রাজ্যসভার মার্শালদের পোশাক নিয়ে তুঙ্গে বিতর্ক, পুনর্বিবেচনার নির্দেশ নায়ডুর]

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবারও দিল্লির বাতাস ছিল অস্বাস্থ্যকর। এদিকে, আম আদমি পার্টি বায়ুদূষণ নিয়ে এদিন কটাক্ষ করে বিজেপিকে। দিল্লির তিন বিজেপি সাংসদ হর্ষবর্ধন, হংস রাজ হংস এবং রমেশ বিধুরি এদিন দূষণ নিয়ে আলোচনার সময় অধিবেশনে অনুপস্থিত ছিলেন। তার জেরেই কেজরির দলের কটাক্ষ, বিজেপি লোক দেখানো চিন্তা করছে দূষণ নিয়ে। দিল্লিবাসীর জন্য কোনও সহানুভূতিই নেই তিন বিজেপি সাংসদের।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং