BREAKING NEWS

৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ই-মেল পাঠিয়ে শুনানির তারিখ বিচারপ্রার্থীকে জানাবে আদালতই

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 27, 2017 4:32 am|    Updated: September 22, 2019 2:41 pm

Trial courts to send alerts to litigants on case status

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  চিঠির পাঠ তো কবেই চুকিয়েছে। এখন অফিসে ই-মেলেই গুরুত্বপূর্ণ নথি ও তথ্য আদানপ্রদান করা হয়। অনেকে তো আবার হোয়াটসঅ্যাপও করেন। সম্প্রতি রাজধানী, শতাব্দীর মতো ট্রেন দেরিতে চললে এসএমএস করে যাত্রীদের তা জানিয়ে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে রেল। আর এবার মামলাকারীদের মামলার গতি-প্রকৃতি, পরবর্তী শুনানি তারিখ জানিয়ে মেল পাঠাবে আদালতও। জানা গিয়েছে, নিম্ম আদালতে বিচার প্রক্রিয়া আরও স্বচ্ছ ও দ্রুত করার জন্যই এই পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

[নাবালিকা ধর্ষণে এবার মৃত্যুদণ্ডের নিদান মধ্যপ্রদেশে]

সুপ্রিম কোর্ট বা হাই কোর্টের কথা ছেড়েই দিন, দেশের নিম্ন আদালতগুলিতেও মামলার পাহা়ড় জমেছে। বিচারপতিদের অপ্রতুলতা তো রয়েইছে। তার উপর অনেক সময় বাদি বা বিবাদি পক্ষের প্রতিনিধিদের গরহাজিরার কারণেও দ্রুত শুনানি শেষ করা যায় না। ফলে একদিকে যেমন বিচারপার্থীদের হয়রানি বাড়ে, তেমনি বিচার প্রক্রিয়াও বিলম্বিত হয়। সাধারণভাবে আদালতের সঙ্গে মামলাকারীর যোগাযোগ রক্ষা করেন আইনজীবীরাই। অভিযোগ, অনেক সময়েই তাঁরা মক্কেলদের মামলার গতিপ্রকৃতি কিংবা শুনানির সঠিক তারিখ জানান না। ফলে জটিলতা বাড়ে।  এই সমস্যা সমাধান করার জন্য এবার বিচার পক্রিয়াকে ডিজিটাল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের ই-কোর্ট কমিটি। কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এবার থেকে শুনানিতে ঠিক কী হল, তা জানিয়ে মামলাকারীকে মেল পাঠাবে আদালতই। পরবর্তী শুনানির দিনও মেলে জানিয়ে দেওয়া হবে। এমনকী, পরবর্তী শুনানির নির্দিষ্ট তারিখের আগে পাঠানো হবে ‘রিমাইন্ডার মেল’। সুপ্রিম  ই-কোর্ট কমিটির প্রধান এম লাকুর বলেন, ‘এটা আমাদের নজরে এসেছে, যে অনেক সময় আদালতে কী হল, তা  মক্কেলকে জানান না আইনজীবীরা। তাতে বিভ্রান্ত হন বিচারপ্রার্থীরা।’

[স্ত্রীকে খোরপোশ দিতে স্বামীকে বাধ্য করতে পারে না আদালত: সুপ্রিম কোর্ট]

প্রসঙ্গত, দেশের বিচারব্যবস্থাকেও ডিজিটাল করে তোলার লক্ষ্যে ২০০৫ সালেই ই-কোর্ট প্রকল্প চালু হয়েছিল। সেই প্রকল্পের আওতায় এবার বিচারপ্রার্থীদের এই ই-মেল পরিষেবা দেওয়া হবে। তবে শুধু বিচারপ্রার্থীরাই নন, যদি চান, তাহলে আইনজীবীরা আদালতের এই ই-মেল পরিষেবার সুবিধা নিতে পারবেন। কিন্তু, কীভাবে মিলবে এই পরিষেবা?  এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত এক বিচারবিভাগীয় আধিকারিক জানিয়েছেন, মামলার দায়ের করার সময়ে আদালতকে নিজের ই-মেল জানাতে হবে মামলাকারীকে। আর যদি কারও বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়, তাহলে প্রথম হাজিরার দিন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি আদালতকে নিজের মেল আইডি জানিয়ে দিতে পারেন। বস্তুত, এখন নিম্ন আদালতে যেসব মামলার শুনানি চলছে, সেই মামলার বাদি ও বিবাদি পক্ষে প্রতিনিধিরাও যদি নিজেদের মেল আইডি আদালতে নথিভুক্ত করান, তাহলে তাঁদেরও মেল করে মামলার গতি-প্রকৃতি জানিয়ে দেবে আদালত।

[১১টি স্পা-তে হানা পুলিশের, তাইল্যান্ডের ২৮ যুবতী আটক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে