BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বকেয়া থেকে মূল্যবৃদ্ধি, বাদল অধিবেশনের শেষ দিনেও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব তৃণমূল

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 8, 2022 9:08 pm|    Updated: August 8, 2022 9:08 pm

Trinamool Congress attacks Modi govt as parliament session ends ahead of schedule | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি

নন্দিতা রায়, নয়াদিল্লি: রাজ্যের পাওনা টাকা দিচ্ছে না কেন্দ্র। মূল্যবৃদ্ধির জেরে নাভিশ্বাস উঠছে আমজনতার। এহেন একাধিক ইস্যুতে বাদল অধিবেশনের শেষ দিনেও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বাংলাকে বঞ্চনার অভিযোগ তুলে সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুরেই জিরো আওয়ারে সরব হন লোকসভায় তৃণমূলের দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়।

গতকাল, রবিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চারদিনের দিল্লি সফর শেষ হয়েছে। একাধিক সরকারি কর্মসূচীতে যোগ দেওয়ার সঙ্গে এবারে মুখ্যমন্ত্রীর অন্যতম কর্মসূচী ছিল রাজ্যের পাওনা আদায়ের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক। কেন্দ্রের কাছে বাংলার বকেয়া ১ লক্ষ কোটি টাকা মেটানোর দাবি নিয়েই মোদির কাছে হাজির হয়েছিলেন মমতা। মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বাংলাকে বঞ্চনার অভিযোগ তুলে সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুরেই জিরো আওয়ারে সরব হন লোকসভায় তৃণমূলের দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। দাবি তুললেন অবিলম্বে রাজ্যের বকেয়া টাকা মেটাক কেন্দ্রীয় সরকার। দীর্ঘদিন ধরে রাজ্যের বকেয়া না মিটিয়ে পশ্চিমবঙ্গকে আর্থিকভাবে অবরুদ্ধ করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: চলতি অর্থবর্ষে ১০০ দিনের প্রকল্পে কানাকড়িও দেয়নি কেন্দ্র, রাজ্যের অভিযোগ মানলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী]

প্রধানমন্ত্রীর হাতে মুখ্যমন্ত্রীর তুলে দেওয়া স্মারকলিপির প্রসঙ্গ তুলে সুদীপ বলেন,”দ্রুত এই বকেয়া অর্থের অর্ধেক মেটানো এবং বাকি অর্ধেক টাকা চলতি আর্থিক বছরেরে শেষ মেটানো হোক। আমাদের আশঙ্কা, খুব খারাপ ভাবে পশ্চিমঙ্গের অর্থনীতিকে অবরুদ্ধ করার চেষ্টা চলছে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং সরকারকে বলতে চাই, রাজ্যের যে বকেয়ার কথা মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন, তা দ্রুত মিটিয়ে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো শক্তিশালী করা হোক।”

বাদল অধিবেশনের শুরু থেকে শেষদিন পর্যন্ত কেন্দ্র সরকারের বিরোধিতায় আক্রমণাত্মক মেজাজ ধরে রেখেছে তৃণমূল কংগ্রেস। মূল্যবৃদ্ধি, চিঁড়ে, মুড়ি, দইয়ে জিএসটি বসানোর মত কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধি সিদ্ধান্তের বিরোধিতা, আমজনতার সমস্যা তুলে ধরার পাশাপাশিই বাংলার অধিকার নিয়েও লাগাতার সংসদে সরব হয়েছে তৃণমূল। শেষদিনও তার ব্যতিক্রম হয়নি। লোকসভায় বাংলার দাবি নিয়ে সরব হওয়ার পাশাপাশিই নির্ধারিত সময়ের আগেই বাদল অধিবেশন শেষ করে দেওয়ায় সরকারের সমালোচনায় মুখর হতে দেখা গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসকেই।

উল্লেখ্য, নির্ধারিত সময়ের চারদিন আগেই বাদল অধিবেশনে ইতি টেনেছে সরকার। এনিয়ে একটানা সাতবার সংসদের অধিবেশন নির্ধারিত সময়ের আগেই শেষ করে দেওয়া হয়েছে বলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চাঁচাছোলা ভাষায় কটাক্ষ করেছেন তৃণমূলের রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়ান। টুইটারে তিনি লিখেছেন, “সংসদ নিয়ে ছেলেখেলা বন্ধ করুন। আমরা সংসদের পবিত্রতা বজায় রাখর জন্য লড়াই চালিয়ে যাব। যাতে প্রধানমন্ত্রী এই মহান প্রতিষ্ঠানকে গুজরাট জিমখানা করে তুলেত না পারেন তা আটকানোর জন্য লড়াই চলবে।” নিজের টুইটের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-কে ট্যাগও করেছেন তিনি। বলে রাখা ভাল, চলতি মাসের ১২ তারিখ পর্যন্ত বাদল অধিবেশন চলার কথা ঘোষণা করা হলেও তার চারদিন আগেই এদিন বিকেল সাড়ে পাঁচটার মধ্যেই লোকসভা ও রাজ্যসভা উভয় কক্ষই সাইন-এ-ডাই, অর্নিষ্টিষ্ট কালের জন্য মুলতবি করে দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ‘আত্মনির্ভর’ ভারত, এবার মেরামতির জন্য চেন্নাইতে মার্কিন রণতরী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে