BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ডাকিনি তন্ত্রের সাধনা! অসমে সন্দেহের বশে দু’জনকে পিটিয়ে হত্যা উন্মত্ত জনতার

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 2, 2020 3:21 pm|    Updated: October 2, 2020 3:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসমে ফের কুসংস্কারের বলি দুই। ডাকিনি তন্ত্রের সাধনা করার অভিযোগে এবার কার্বি আংলং জেলায় দু’জনকে পিটিয়ে খুন করল উন্মত্ত জনতা। বুধবার রাতে ঘটনাটি ঘটলেও পুলিশের কাছে খবর পৌঁছায় বৃহস্পতিবার। তারপরই তড়িঘড়ি সন্ধান চালিয়ে মৃতদেহের অবশেষ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় ন’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: রাহুলের সঙ্গে পুলিশের আচরণ গণতন্ত্রের গণধর্ষণের সমান! সঞ্জয় রাউতের মন্তব্যে বিতর্ক]

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতদের মধ্যে একজন পুরুষ ও একজন মহিলা। বুধবার গভীর রাতে কার্বি আংলংয়ের ডকমকা গ্রামের বাসিন্দা প্রায় বছর পঞ্চাশের মহিলা রমাবাই হালুয়া গৌর ও ২৮ বছরের বিজয় গৌরের উপর দা, লাঠি ও অন্য ধারাল অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয় গ্রামবাসীদের একাংশ। স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই দুই ব্যক্তি ডাকিনি সাধনা করে। সেপ্টেম্বরের ২৭ তারিখ এ স্থানীয় তরুণীর মৃত্যু নাকি ডাইনি বিদ্যা প্রয়োগের দরুনই হয়েছে। অত্যন্ত নৃশংসভাবে পিটিয়ে তাঁদের হত্যা করা হয়। পরে প্রমাণ লোপাট করতে দেহ দুটিকে পুড়িয়ে ফেলার চেষ্টা করে হামলাকারীরা।

কার্বি আংলং জেলার পুলিশ সুপার দেবজিৎ দেউরি জানিয়েছেন, এই ঘটনায় জড়িত ন’জন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হামলায় ব্যবহার হওয়া হাতিয়ারও উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। জেরায় নিজের অপরাধ স্বীকার করেছে ধৃতর বলেও জানিয়েছেন পুলিশ সুপার। তবে অসমে (Assam) এহেন ঘটনা নতুন কিছু নয়। পাহাড়ি রাজ্যটিতে থাকা বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর ও জাতি উপজাতির মানুষের একটি বড় অংশের মধ্যে এখনও কুসংস্কার রয়েছে। বিশেষ করে ডাকিনি তন্ত্রের সাধনা, ভূত, পিশাচ এসব নিয়ে বিস্তর ভীতি রয়েছে তাদের মনে। এক রিপোর্ট মোতাবেক, ২০১১ সাল থেকে ডাইনি হত্যার নামে খুন করা হয়েছে ১১০ জনকে।

[আরও পড়ুন: হাথরাসের পথে তৃণমূলের প্রতিনিধিদলের পথ আটকাল পুলিশ! সাংসদদের হেনস্তার অভিযোগ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement