২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাড়ির সামনে মদ্যপানের আসর, প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধকে ১৫০ বার কোপাল দুই মদ্যপ

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 12, 2020 11:28 am|    Updated: August 12, 2020 11:28 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাড়ির সামনেই  মদ্যপানের আসর জমিয়ছিল  দুই যুবক। তাতে আপত্তি জানিয়েছিলেন এক বৃদ্ধ। তার ফল যে এমন মারাত্মক হবে, তা বোধহয় তিনি স্বপ্নেও ভাবেননি। প্রতিবাদের ‘শাস্তি’ দিতে মদ্যপ দুই যুবক পাথর দিয়ে বৃদ্ধে মাথা থেতলে দেয়। পরে প্রতিবাদীকে কুপিয়ে দেহের ১৫০টি টুকরো করে তারা। ছত্তিশগড়ের (Chattishgarh)) এই নৃশংস ঘটনায় শিউড়ে উঠেছে গোটা দেশ।।

পুলিশ সূত্রে খবর, সোমবার রাতে খাবার খেয়ে ভিলাই এলাকায় নিজের বাড়ির বাইরে হাঁটতে বেড়িয়েছিলেন রাম চৌহান। সেই সময়ই দেখেন, তাঁর বাড়ির সামনে বসেই মদ্যপান করছে দুই যুবক। প্রথমে তিনি কিছু না বলেননি। কিন্তু খানিকক্ষণ পরে দেখেন সেখানেই দুই মদ্যপ আসর জমিয়েছে। তখনই তাঁদের অন্যত্র চলে যেতে বলেন রামবাবু। এই কথা শুনেই ক্ষেপে যায় দুই অভিযুক্ত লোকেশ ও দুর্গেশ। বৃদ্ধ রাম চৌহানকে আক্রমণ করে বসে তারা।

[আরও পড়ুন : চোখের নিমেষে আগুনের গ্রাসে গোটা বাস, পুড়ে মৃত্যু অন্তত ৫ জনের]

চিৎকার-চেঁচামিচি শুনে রামবাবু বাড়ির সদস্যরা বেরিয়ে এলে তাঁদেরও খুনের হুমকি দেয় দুই মদ্যপ। এরপর বাড়ির দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে দিয়ে বৃদ্ধ রাম চৌহানের উপর চলে নৃশংস হামলা। পুলিশ সূত্রে খবর, প্রথমেই বৃদ্ধের পা ভেঙে দেওয়া হয়। এরপর ভারী পাথর দিয়ে তাঁর মাথা থেঁতলে দেওয়া হয়। পরে ধারাল অস্ত্র দিয়ে ১৫০ বার কোপানো হয় বৃদ্ধকে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। শুধু তাই নয়, রাম চৌহান নামে ওই বৃদ্ধকে নৃশংসভাবে খুন করার পর তাঁর ছেলেকে অভিযুক্তরা দম্ভের সঙ্গে বলে, ‘চৌহান খতম। খুব বেশি কথা বলছিল।’ এই ঘটনায় ইতোমধ্যে লোকেশ সাহু ও দুর্গেশ সাহুকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন : কংগ্রেস বিধায়কের ভাগ্নের বিতর্কিত ফেসবুক পোস্ট ঘিরে রণক্ষেত্র বেঙ্গালুরু, মৃত ২]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement