Advertisement
Advertisement
Maharashtra

মহারাষ্ট্রে বড় চমক ইন্ডিয়ার! উদ্ধব-শরদের লড়াইয়েই ফলল ‘সোনা’

দলে ভাঙন, খোয়াতে হয়েছিল প্রতীক, তবু লড়াই ছাড়েননি তাঁরা।

Uddhav Thackeray and Sharad Pawar factions fought well in Maharashtra
Published by: Biswadip Dey
  • Posted:June 4, 2024 4:24 pm
  • Updated:June 4, 2024 4:31 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত কয়েক বছরে ‘রাজনৈতিক নাটক’ সবচেয়ে বেশি বোধহয় মহারাষ্ট্রকে ঘিরেই হয়েছে। আর সেই কারণেই এবারের লোকসভা নির্বাচনের সামগ্রিক ফলাফলের পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) ফলাফলের দিকেও নজর ছিল সকলের। বিশেষ করে শরদ পওয়ার ও উদ্ধব ঠাকরের শিবির কী করে সেদিকে। এখনও পর্যন্ত মেলা ফলাফলের হিসেবে দেখা যাচ্ছে, উদ্ধব ঠাকরে ও শরদ পওয়ার কিন্তু দলের ভাঙনের পরও নিজেদের লড়াই অব্যাহত করে রেখেছেন। আর তাতেই ফলেছে সুফল।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি (BJP) ও শিব সেনা (Shiv Sena) জোট বেঁধেছিল। ৪৮ আসনের মধ্যে ৪১টিতেই জয়লাভ করেছিল তারা। এনসিপি পেয়েছিল চারটি আসন। কংগ্রেস মাত্র একটি। পরে বিধানসভা নির্বাচনেও বজায় ছিল শিব সেনা ও গেরুয়া শিবিরের ‘ম্যাজিক’। কিন্তু শেষপর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রীর পদ নিয়ে ভাঙন ধরে তাদের মধ্যে। উদ্ধব ঠাকরে পদ্মের হাত ছেড়ে এনসিপিও কংগ্রেসকে নিয়ে মহারাষ্ট্রে সরকার গড়েন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বুথফেরত সমীক্ষায় অনেক এগিয়ে এনডিএ, ২০১৯-এর এক্সিট পোলকেও ছাপিয়ে গেল?]

কিন্তু আড়াই বছরের মধ্যেই বড় ধাক্কা খান উদ্ধব। দীর্ঘদিনের বিশ্বস্ত সঙ্গী একনাথ শিণ্ডে শিব সেনায় ভাঙন ধরান। ‘বিদ্রোহী’ নেতাদের নিয়ে বিজেপিতে যোগ দেন তিনি। বদলে যা সব সমীকরণ। বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে নতুন সরকার গড়ে শিব সেনার শিণ্ডে শিবির। মুখ্যমন্ত্রী হন শিণ্ডে। অন্যদিকে এনসিপিতেও দেখা যায় ভাঙন। শরদ পওয়ারের ভাইপো অজিত পওয়ারও ‘বিদ্রোহী’ হয়ে উঠে বিজেপিতে যোগ দেন।

Advertisement

এই পরিস্থিতিতে এবার নির্বাচনে পুরো সমীকরণটাই যেন ২০১৯ সালের বিপরীত ছবি তুলে ধরতে শুরু করেছিল। একদিকে শরদ পওয়ার, উদ্ধব শিবিরের সঙ্গে কংগ্রেস হাত মিলিয়ে গড়েছিল মহা বিকাশ আগারি। অন্যদিকে বিজেপি ও শিণ্ডে-অজিত শিবির মিলে মহাজুটি। এখনও পর্যন্ত যা ফলাফলের ছবি, তাতে দেখা যাচ্ছে এনডিএ যেখানে ১৯টি আসনে এগিয়ে, সেখানে ইন্ডিয়া জুটি এগিয়ে ২৮টি আসনে। অন্যান্য ১। এই ফলাফলই বলে দিচ্ছে, শরদ পওয়ার (Sarad Pawar) এবং উদ্ধবের মতো অভিজ্ঞ নেতারা তাঁদের লড়াইয়ের ফল পেলেন। প্রথমজন ভাইপো, অন্যজন বিশ্বস্ত ছায়াসঙ্গীর ‘বিশ্বাসঘাতকতা’র সাক্ষী হয়েছেন। দলের ভাঙন, প্রতীক হারানোর মতো ঘটনাতেও ভেঙে না পড়ে লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন। সেই লড়াইয়ের ফল যে তাঁদের মুখে হাসি ফোটাচ্ছে তা বলাই বাহুল্য।

[আরও পড়ুন: দক্ষিণে বিজেপির সূর্যোদয়, বুথফেরত সমীক্ষায় প্রত্যাশা পূরণ হচ্ছে কি?]

এবছরের শেষেই মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচন। আর সেই ভোটে যে লোকসভার ফলাফল দুরন্ত অক্সিজেন জোগাবে ইন্ডিয়া জোটকে, তা পরিষ্কার। এমন ফলাফলের পর উচ্ছ্বসিত শরদ পওয়ার। তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, ”আমি মহারাষ্ট্রের মানুষের জন্য গর্বিত।” সেই সঙ্গেই তিনি জানিয়েছেন, আগামিকাল, বুধবার ইন্ডিয়ার নেতারা বৈঠক করবেন।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ