৭ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী পদে ১০০ দিন পূর্ণ করেছেন উদ্ধব ঠাকরে৷ সেই উপলক্ষে অযোধ্যায় গিয়ে ভগবান রামের আশীর্বাদ নেবেন তিনি৷ এমনটাই জানিয়েছে শিব সেনা৷ তবে তাৎপর্যপূর্ণভাবে সফরসঙ্গী হিসেবে রাহুল গান্ধীকেও আমন্ত্রণ জানিয়েছেন উদ্ধব৷ ফলে শুরু হয়েছে জল্পনা৷     

বুধবার নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে শিব সেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত জানান, ‘মুখ্যমন্ত্রী পদে ১০০ দিন সম্পূর্ণ হওয়ায় এবার অযোধ্যা যাবেন উদ্ধব ঠাকরে৷’ তিনি বলেন, “রামলাল্লার আশীর্বাদ নিতে রাম মন্দির দর্শনে যাবেন উদ্ধব৷ আমরা জোটসঙ্গী কংগ্রেস ও এনসিপির নেতাদেরও এই সফরে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি৷ রাহুল গান্ধী অনেক মন্দিরে যান৷ তিনিও আমাদের সঙ্গী হতে পারেন৷” উল্লেখ্য, বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসার পর এই প্রথম রাম মন্দিরে যাবেন উদ্ধব৷ গত অক্টোবর মাসে বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে চলা ‘মহা নাটকের’ শেষে গেরুয়া শিবির ছেড়েছিলেন ঠাকরে৷ তারপরই শরদ পাওয়ারের নির্দেশে ‘জোটের স্বার্থে’ ২৪ নভেম্বর পূর্বপরিকল্পিত রাম মন্দির সফর বাতিল করেন তিনি৷ তবে এবার রাহুল গান্ধীকে আমন্ত্রণ জানিয়ে জল্পনা উসকে দিয়েছে শিব সেনা৷            

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, ‘মহা বিকাশ আঘাড়ি’তে যোগ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর পাশাপাশি সবে ‘সেকুলার’ হয়েছেন উদ্ধব ঠাকরে৷ গত নভেম্বরে শরদ পাওয়ারের নির্দেশেই রাম মন্দিরের দিকে পা বাড়াননি তিনি৷ তবে ‘হিন্দুত্ব’ ছেড়ে ঠাকরের ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ হওয়ায় প্রভাব পড়েছে শিব সেনার ‘কোর হিন্দু ভোটব্যাংকে’৷ সেখানে ভাগ বসাতে পারে বিজেপি৷ শুধু তাই নয়, মারাঠি অস্মিতার আপাতত ‘ফাঁকা’ ময়দানে জমি দখল করতে পারেন ‘মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা’র প্রধান রাজ ঠাকরে৷ বাকি রইল ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ ও মুসলিম ভোটার৷ সেখানে ক্রমে জমি শক্ত করছে কংগ্রেস৷ সব মিলিয়ে, লাভের গুড় শুধু নয়, আদর্শ জলাঞ্জলি দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হতে গিয়ে আখও খুইয়েছেন উদ্ধব৷ তাই রাহুল গান্ধীকে সফরসঙ্গী করে হিন্দু ভোটের পাশাপাশি ‘সেকুলার’ তকমাও বজায় রাখতে চাইছেন তিনি৷  

অনেকেই মনে করছেন, উদ্ধবের আমন্ত্রণে বেশ অস্বস্তিতে পড়েছেন রাহুল গান্ধী৷ লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির হিন্দুত্বকে টেক্কা দিতে ‘টেম্পল রান’ করেছিলেন তিনি৷ তবে ফলে মেলেনি কিছুই৷ তাই এবার রাম মন্দির দর্শন করে মুসলিম ভোটব্যাংকে চটাতে চাইবেনা না তিনি৷ একইভাবে দর্শনে না গেলে ভুল বার্তা যাবে হিন্দুদের কাছেও৷ এদিকে, দিল্লি ও বিহারে বিধানসভা নির্বাচন আসন্ন৷ সব মিলিয়ে এবার কী করবেন রাহুল, সেটাই দেখার৷             

[আরও পড়ুন: খর্ব হচ্ছে নাগরিক অধিকার, বিশ্ব গণতন্ত্র সূচকে ১০ ধাপ নিচে নামল ভারত]                      

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং