BREAKING NEWS

২৬ বৈশাখ  ১৪২৯  সোমবার ১৬ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

GST-র পুরো মানে জানেনই না যোগীর রাজ্যের এই মন্ত্রী

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 30, 2017 5:55 am|    Updated: June 30, 2017 5:55 am

UP Minister Ramapati Shastri Fails To Spell Out Full Form Of GST

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশ জুড়ে গুডস অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্যাক্স বা জিএসটি চালু হতে আর ১২ ঘন্টাও বাকি নেই। তার আগে উত্তরপ্রদেশের জনকল্যাণ, তফশিলি ও আদিবাসী সম্প্রদায়ের উন্নয়নমন্ত্রী রমাপতি শাস্ত্রী জানেনই না, জিএসটি-র পুরো মানে কী? সাংবাদিকরা তাঁর কাছে জিএসটির পুরো মানে জানতে চাইলে মন্ত্রীকে আমতা আমতা করতে দেখা যায়। তিনি বলেন, “আমি জিএসটির পুরো মানেই জানি। আমাকে শুধু আর একবার নজর বুলিয়ে নিতে হবে। নথিগুলো হাতে পাই আগে।” এমনকী, মন্ত্রীর পিছনে দাঁড়িয়ে এক অধস্তন তাঁর কানে কানে জিএসটির মানে বলে দিলেও টেনশনে মন্ত্রী বোধহয় আর সেই কথা শুনতে পাননি।

[সীমান্তে মুখোমুখি ভারত ও চিনের প্রায় তিন হাজার সেনা]

রমাপতি শাস্ত্রীর শরীরী ভাষাই বলে দিচ্ছিল, যে প্রকাশ্যে এই ঘটনায় তিনি যথেষ্টই অস্বস্তিতে। ঘটনার সূত্রপাত মহারাজগঞ্জে। সেখানে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের একাংশকে জিএসটি সম্পর্কে বোঝাতে যান যোগী আদিত্যনাথ প্রশাসনের মন্ত্রী। তিনি মহারাজগঞ্জ জেলার দায়িত্বেও রয়েছেন। এই ঘটনায় যোগী আদিথ্যনাথের দলেরও মুখ পুড়ল বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ, এই ঘটনার মাত্র ৪৮ ঘন্টা আগেই মুখ্যমন্ত্রী ক্যাবিনেটের বিশেষ বৈঠকে জিএসটি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন। গত ১৪ জুন মুখ্যমন্ত্রী তাঁর মন্ত্রীদের নির্দেশ দেন, রাজ্যের মানুষকে জিএসটি-র ভাল দিকগুলি জানাতে হবে। কিন্তু যে মন্ত্রী নিজেই জিএসটির সম্পূর্ণ মানে জানেন না, তিনি কী করে রাজ্যের মানুষকে জিএসটির ভালমন্দ বোঝাতে পারবেন, সে বিষয়ে বিস্তর সন্দেহ তৈরি হয়েছে।

[ছাত্রীদের আবেদনে সাড়া মুখ্যমন্ত্রীর, এবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয়েও ‘কন্যাশ্রী’]

দেখুন সেই ভিডিও:

১ জুলাই থেকেই চালু হচ্ছে পণ্য পরিষেবা কর বা জিএসটি। এর ফলে কর কাঠামোয় ব্যাপক রদবদল হচ্ছে। সাধারণ মানুষের কাছে তো বটেই ব্যবসায়ীদের মনেও তাই নানা জিজ্ঞাসা। প্রত্যেকের চাহিদা অনুযায়ী তাদের উত্তরও হবে আলাদা আলাদা। এই সমস্যা মেটাতেই এবার ওয়ার রুম খোলার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। সকাল আটটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত চালু থাকবে এই পরিষেবা। জিএসটি সংক্রান্ত যে কোনও সমস্যার সমাধানে তৈরি থাকবেন সরকারি কর্মীরা। প্রত্যেক মন্ত্রকের দপ্তরেও আলাদা করে জিএসটি সেল তৈরি করা হয়েছে। টেক স্যাভি কর্মীরা যে কোনও সমস্যার সমাধান করতে তৈরি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে