BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম ভেঙেছে ৬ মাসের শিশু! মামলা রুজু পুলিশের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 24, 2020 10:08 am|    Updated: April 24, 2020 10:08 am

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের হামলা রুখতে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। দেশের সমস্ত রাজ্যে তা লগু করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুলিশ ও প্রশাসনকে।মহামারির আবহে বিধিনিষেধ উলঙ্ঘন করায় দেশজুড়ে গ্রেপ্তার হয়েছে অনেককেই। এহেন পরিস্থিতিতে, একটি ৬ মাসের শিশুর বিরুদ্ধে কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম ভাঙার অভিযোগে এফআইআর করে তুমুল বিতর্ক উসকে দিয়েছে উত্তরাখণ্ডের পুলিশ।

[আরও পড়ুন: করোনার ছায়া মহারাষ্ট্রের মন্ত্রিসভায়, আক্রান্ত আবাসনমন্ত্রী জিতেন্দ্র আওহাদ]

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, লকডাউন চলাকালীন হোম কোয়ারেন্টানের বিধিনিষেধ ভাঙার অভিযোগে ৫১ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে উত্তরকাশীর পুলিশ। সকলকে অবাক করে অভিযুক্তদের মধ্যে নাম রয়েছে একটি ৬ মাসের ও একটি তিন বছরে শিশুর।বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক। একটি ছ’মাসের বাচ্চা কি হেঁটে বাড়ি ছেড়ে বেরিয়েছে? তিন বছরের শিশুর পক্ষেই বা তা কী করে সম্ভব? মামলা করার সময় পুলিশ কি সাধারণ জ্ঞানটুকু হারিয়ে ফেলেছিল? সমাজের বিভিন্ন স্তর থেকে উঠছে এমন প্রশ্নই। এদিকে, গোটা ঘটনায় মুখ পুড়েছে প্রশাসনের। পরিস্থিতি সামাল দিতে আসরে নামেন উত্তরকাশীর জেলাশাসক। তিনি জানান, ৮ বছরের কম বয়সের কারও বিরুদ্ধে জুভেনাইল জাস্টিস অ্যাক্ট প্রয়োগ করে মামলা করা যায় না। বিষয়টি খতিয়ে দেখে তদন্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

উল্লেখ্য, দেশজুড়ে লকডাউন চলাকালীন অনেক জায়গা থেকেই হিংসার খবর এসেছে।বিধিনিষেধ না মেনে বাজারে জমায়েতের ছবি প্রায়শই দেখা যাচ্ছে। বাধা দিতে গেলে অনেক ক্ষেত্রেই আক্রান্ত হয়েছেন পুলিশ ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে পশ্চিমবঙ্গেও পুলিশকে কড়াকড়ি করতে তবে বাড়াবাড়ি না করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধায়। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রেই দু’টি ক্ষেত্রের মধ্যে সীমানা বোঝা দায় হয়ে উঠছে। এদিকে, ভারতে অব্যাহত নোভেল করোনা ভাইরাসের দাপট। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩০৭৭। মৃত্যু হয়েছে ৭১৮ জনের। মুম্বই, দিল্লি, কলকাতা, ইন্দোর-সহ একাধিক শহরের করোনা পরিস্থিতি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও ভয়াবহ হয়ে উঠছে। পরিস্থিতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে শহরগুলিতে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

[আরও পড়ুন: অবশেষে করোনামুক্ত ত্রিপুরা, চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের ধন্যবাদ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement