BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মোদির নিরাপত্তা ইস্যু: প্রধানমন্ত্রীর কনভয়ের কাছে ভিড় জমান BJP সমর্থকরাও! ভিডিও ঘিরে চাঞ্চল্য

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: January 7, 2022 3:52 pm|    Updated: January 7, 2022 4:16 pm

Video shows

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাঞ্জাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) নিরাপত্তায় গাফিলতি নিয়ে যখন বিতর্ক চরমে, সেই সময় প্রকাশ্যে এল বিজেপি (BJP) সমর্থকদের একটি ভিডিও। যেখানে দেখা গেল, এসপিজি (SPG) নিরাপত্তার বলয় থাকা সত্বেও সেদিন প্রধানমন্ত্রীর গাড়ির কয়েক মিটারের মধ্যে পৌঁছে গিয়েছিলেন বেশ কয়েকজন বিজেপি সমর্থকও। বলাবাহুল্য, এই ঘটনায় নয়া মোড় নিল প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় গলদের বিতর্ক।

ঠিক কী দেখা গিয়েছে ওই ভিডিওতে? বিতর্কিত ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, বিজেপির পতাকা হাতে কয়েকজন সমর্থক। তাঁদের মুখে ছিল ‘বিজেপি জিন্দাবাদ’ স্লোগান। গেরুয়া সমর্থকদের ওই দলটি বিপজ্জনকভাবে প্রধানমন্ত্রীর কালো রংয়ের টয়োটা ফোর্টনার গাড়িটির কাছে গিয়ে স্লোগান দিতে থাকে। তাঁরা প্রায় রাস্তার উপরে উঠে পড়ে। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, বাধ্য হয়ে প্রধানমন্ত্রীর গাড়ির চালক রাস্তার একধারে সরিয়ে নিচ্ছেন টয়োটা ফোর্টনারটিকে।

[আরও পড়ুন: ‘মোদির নিরাপত্তায় গলদ বিরলতম ঘটনা, লজ্জায় পড়তে পারে দেশ’, সুপ্রিম কোর্টে বলল কেন্দ্র]

জানা গিয়েছে, যে কৃষক বিক্ষোভের জন্য প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি ফ্লাইওভারে আটকে পড়ে সেখানেই যাচ্ছিলেন এই বিজেপি সমর্থকরাও। একইভাবে যানজটের কারণে তাঁরা আটকে পড়েন। হঠাৎই প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি দেখে অতি উৎসাহে তাঁরা সেদিকে এগিয়ে যান। মনে করা হচ্ছে, এই ঘটনাও সেদিন প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার বড়সড় গলদের অন্যতম প্রমাণ।

এদিকে আজ সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) কেন্দ্র জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নিরাপত্তার গলদ বিরলের মধ্যে বিরলতম ঘটনা। এর ফলে আন্তর্জাতিক মহলে লজ্জার মুখে পড়তে হতে পারে ভারতকে। শুক্রবার কেন্দ্রীয় সরকারের সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতা সুপ্রিম কোর্টে জানিয়েছেন, বুধবার প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠে গিয়েছিল। যা ভারতের জন্য আন্তর্জাতিক লজ্জার কারণ হতে পারে।

[আরও পড়ুন: মোদির নিরাপত্তা ইস্যুতে জোরাল হচ্ছে পাঞ্জাবে রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি, কড়া পদক্ষেপের ইঙ্গিত কেন্দ্রেরও]

প্রধান বিচারপতি এন ভি রামানার (NV Ramanna) নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, এই ঘটনার তদন্তে পাঞ্জাব সরকার এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক যে পৃথক তদন্তকারী দল গঠন করেছে, সেই তদন্তকারী দলগুলি আগামী সোমবার পর্যন্ত কোনও পদক্ষেপ করতে পারবে না। সোমবার এই মামলার পরবর্তী শুনানি। শীর্ষ আদালত জানিয়ে দিয়েছে, আগামী দিনে কেন্দ্রীয় স্বরাস্ত্রমন্ত্রকের গড়ে দেওয়া কমিটিতে এনআইএ-র কোনও আধিকারিককে যুক্ত করা হতে পারে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে