BREAKING NEWS

১ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ১৬ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বন্য হাতিদের ঢিল ছোঁড়া, কুকুর নিয়ে তাড়া! তামিলনাড়ুর আদিবাসী তরুণদের বিরুদ্ধে দায়ের অভিযোগ

Published by: Biswadip Dey |    Posted: May 6, 2021 10:38 pm|    Updated: May 7, 2021 1:20 pm

Videos of tribal youths harassing wild elephants in Tamil Nadu go viral on social media, 3 booked | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বন্যেরা বনে সুন্দর। এই প্রবচন যে মানুষ মনে রাখতে চায় না তা কোনও নতুন কথা নয়। বন্য প্রাণীদের তাদের নিজের জগতে নিজের মতো থাকতে দিতে আপত্তি বহু মানুষের। বরং তাদের খুঁচিয়ে, বিরক্ত করেই তারা এক হিংস্র আমোদ পায়। সেই কথাই নতুন করে মনে করিয়ে দিল তামিলনাড়ুর (Tamil Nadu) তিরুপুর জেলার ঘটনা। সেখানে আদিবাসী তরুণদের দেখা গেল বন্য হাতিদের (Elephant) প্রবলভাবে উত্যক্ত করতে। ভিডিওগুলি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইনে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ঠিক কী দেখা যাচ্ছে ভিডিওগুলিতে? প্রতিটিতেই স্থানীয় আদিবাসীদের নির্দয়তা প্রকট হয়েছে। দেখা যাচ্ছে ওই তরুণেরা ঢিল ছুঁড়ছে হাতিদের উদ্দেশে। তাদের বিশ্রীভাবে বিরক্ত করছে। আর এই পুরো ঘটনাই কেউ তার মোবাইলে ফোনে তুলে রাখছে। পরে সেই ভিডিওই প্রকাশ্যে আসে। আর তার ফলেই নজর পড়ে কর্তৃপক্ষের।

[আরও পড়ুন: গাছ থেকে ঝুলছে স্যালাইনের বোতল! মধ্যপ্রদেশে মাঠের মধ্যেই করোনার চিকিৎসায় ব্যস্ত হাতুড়েরা]

প্রশ্ন উঠছে, কী করে ওই রকম সংরক্ষিণ বনাঞ্চলে ঢুকতে পারল ওই যুবকেরা। ভিডিওয় পরিষ্কার, রীতিমতো দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তারা। কেউ কেউ হাতিদের উত্যক্ত করছে, তাদের তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে। অনেকে গাছে চড়েও বসে রয়েছে। সেই সঙ্গে কুকুর নিয়ে তাড়াও করতে চাইছে হাতিদের। ভিডিও নজরে আসার পরই নড়েচড়ে বসে তিরুপুর জেলার বন বিভাগের আধিকারিকরা। দ্রুত একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। শুরু হয় অভিযুক্তদের চিহ্নিত করার কাজ। বন বিভাগ জানিয়েছে, এখনও কাউকে চিহ্নিত না করতে পারলেও তাদের দৃঢ় বিশ্বাস, খুব শিগগিরি ধরা পড়বে তিন মূল অভিযুক্ত।

প্রসঙ্গত, বন্য প্রাণীর উপরে এই ধরনের নির্দয়তার দেখা বারবার মিলেছে। তবে তার মধ্যে গত বছরের জুনে কেরলের একটি গর্ভবতী হাতির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে দেশজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়। বিস্ফোরক ভরতি আনারস খেয়ে ফেলেছিল হাতিটি। ফলে তার মুখের মধ্যেই ফেটে যায় সেটি। এরপর আহত অবস্থায় অত্যন্ত যন্ত্রণাকাতর অবস্থাতেই শেষ পর্যন্ত মারা যায় সে। নৃশংসতার সেই চরম নিদর্শন দেখে গর্জে উঠেছিল সারা দেশের পশুপ্রেমী সংবেদনশীল মানুষেরা।

[আরও পড়ুন: অসমের মুসলিম এলাকায় ফুটল না পদ্ম, ব্যর্থতায় দলের সংখ্যালঘু সেল-ই তুলে দিল BJP]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement