BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দেশদ্রোহীদের গুলি করতে বলার মধ্যে ভুল কোথায়?’, ফের বিতর্কিত মন্তব্য বিজেপি সাংসদের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: February 11, 2020 9:05 pm|    Updated: February 11, 2020 9:05 pm

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লিতে তখন সবে ভোটগণনা শুরু হয়েছে। ট্রেন্ড দেখে বোঝা যাচ্ছে অল্প কয়েকটি আসন হারালেও ফের ক্ষমতায় ফিরছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দল আপ। এর অবস্থাতেও ফের শাহিনবাগের প্রসঙ্গ তুলে বিতর্কে ঘি ঢাললেন দিল্লির বিজেপি সাংসদ রমেশ বিধুরি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরের বিতর্কিত ‘গোলি মারো‘ মন্তব্যকে সমর্থন জানিয়ে বললেন, ‘দেশদ্রোহীদের গুলি করে মারতে বলার মধ্যে ভুল কোথায়?’

গত ১১ ডিসেম্বর সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন(CAA) পাশ হওয়ার পর থেকেই বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল দেশের বিভিন্ন জায়গায়। আজ বেশিরভাগ জায়গাতেই সেই বিক্ষোভ বন্ধ হলেও পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়নি দিল্লির শাহিনবাগ এলাকায়। তাই গত মাসে নির্বাচনী প্রচারে এসে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর শাহিনবাগের প্রতিবাদীদের গুলি করার নিদান দিয়েছিলেন। এরপরই বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয় দেশের রাজনৈতিক মহলে। বিরোধীদের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর জবাব তল করে নির্বাচন কমিশন। তাঁর প্রচারের উপরে সাময়িক নিষেধাজ্ঞাও জারি হয়। মঙ্গলবার সকালে বিধানসভার ফলাফল প্রকাশের দিন ফের সেই বিতর্কিত মন্তব্যকেই সমর্থন করলেন রমেশ বিধুরি। এ প্রসঙ্গে প্রশ্ন তোলেন, আদালতে দেশদ্রোহীদের বিচার করার পর যদি ফাঁসিতে ঝোলানোর নির্দেশ দেওয়া হয়। তাহলে এই ধরনের লোকদের গুলি করে মারতে বললে কেন অন্যায় হবে।

[আরও পড়ুন: ভালবাসার দিনেই ফের শপথ, তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে বসবেন কেজরিওয়াল ]

 

তবে শুধু শাহিনবাদের প্রসঙ্গও নয়, আজ দিল্লি নির্বাচনের ফলাফলের পিছনে কেজরিওয়াল সরকারের ফ্রিতে বিদ্যুৎ পরিষেবা দেওয়ার বিষয়টি উল্লেখ্যযোগ্য অবদান রাখতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, ভোটের দুমাস আগে রাজ্যের মানুষকে বিনামূল্যে ২০০ ইউনিট করে বিদ্যুৎ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে গরিব মানুষের মন জয় করেছেন কেজরিওয়াল। এর ফলে আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন তিনি। বিজেপির নেতা-কর্মীরাও যদিও ভাল করে কেন্দ্রীয় সরকারের জনমুখী প্রকল্পগুলির প্রচার করতে পারত। তাহলে আমাদের ভাল ফল হওয়ার সম্ভাবনা থাকত। ‘

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে