৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউন কি বাড়বে? জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়ে জানাতে পারেন প্রধানমন্ত্রী

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 10, 2020 12:26 pm|    Updated: April 10, 2020 12:47 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশে করোনা পরিস্থিতি ক্রমাগত জটিল হচ্ছে। লকডাউন করেও সংক্রমণ রোখা যাচ্ছে না। ফলে ১৪ এপ্রিল আদৌ ২১ দিনব্যাপী লকডাউন উঠবে কি না, তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। সূত্র বলছে, শনিবার রাজ্যগুলির সঙ্গে আলোচনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে কেন্দ্র সরকার। লকডাউন বাড়ানো হবে কিনা, তা জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়ে জানাবেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বিশ্বজুড়ে থাবা বসিয়েছে করোনা মহামারি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর কবল থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় লকডাউন। কিন্তু পালটা যুক্তি বলছে, সরকারের এই সিদ্ধান্তের জেরে আর্থিকভাবে চূড়ান্ত ক্ষতির মুখে পড়েছে দেশ। কাজহারা হয়েছেন অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকরা। সুতোয় ঝুলছে সংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মীদের ভবিষ্যতও। রিজার্ভ ব্যাংকও বলছে, দেশের অর্থনীতির বৃদ্ধির হার করোনা সংক্রমণের স্থায়িত্বের উপর নির্ভর করছে। ফলে লকডাউন বাড়বে কিনা তা নিয়ে ধোঁয়াশা থেকেই যাচ্ছে। সূত্র বলছে, লকডাউন বাড়তে পারে। তবে নিয়মে বেশকিছু রদবদল হবে। স্কুল, কলেজ, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ রাখা হবে। ছাড় পাবে অত্যাবশকীয় পণ্য। আন্তঃরাজ্য যাতায়াতের ক্ষেত্রেও নিয়মে বদল আনা হতে পারে। সামাজিক দূরত্ব মানার বিষয় কড়াকড়ি করা হবে।

[আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় তৎপর কেন্দ্র, ১৫ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা]

লকডাউনের জেরে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উড়ান পরিষেবা। লকডাউনের সময়সীমা বাড়লেও উড়ান পরিষেবার নিয়মনীতি শিথিল করা হবে। বিমানের দুটি আসনের মধ্যেকার আসনটি ফাঁকা রেখে বুকিং চালু হতে পারে। কেন্দ্রীয় আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, দেশের মোট ৬০০টি জেলার মধ্যে ৭৫ জেলায় সংক্রমণ ভয়াবহ আকার নিয়েছে। সেই সমস্ত এলাকাগুলিকে চিহ্নিত করে সিল করা হচ্ছে। সেখানে সমস্ত পণ্য হোম ডেলিভারি করা হবে। ঘরের বাইরে বের হলেই কড়া আইনি পদক্ষেপ করা হবে।

[আরও পড়ুন: অসমে করোনার প্রথম বলি, শিলচরে মৃত নিজামুদ্দিন ফেরত ব্যক্তি]

প্রসঙ্গত, রাজ্যের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, সমস্তক্ষেত্র থেকে একলপ্তে লকডাউন তুলে দেওয়া কার্যত অসম্ভব। এরপরই লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানো নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে যায়। এমনকী তেলেঙ্গানা, উত্তরপ্রদেশ, ওড়িশার মতো কিছু রাজ্য লকডাউন বাড়ানোর পক্ষেই সওয়াল করেছিলেন। সেই সব রাজ্যের কিছু অঞ্চল কোনও ক্ষেত্রে গোটা রাজ্যেই লকডাউনের সময়সীমা বাড়িয়েছেন। গোটা দেশে কী হবে, লকডাউন বাড়বে কিনা, তা জানতে শনিবার অবধি অপেক্ষা করতেই হবে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement